kalerkantho

বুধবার । ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩ জুন ২০২০। ১০ শাওয়াল ১৪৪১

বাণিজ্য মেলা

দেশি প্লাস্টিক পণ্যের দাপট

ক্রেতাদের বেশির ভাগই নারী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



প্রতিবছরের মতো এবারের ২৫তম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায়ও রকমারি প্লাস্টিকপণ্য পাওয়া যাচ্ছে। প্লাস্টিকের তৈরি পানি খাওয়ার গ্লাস, চামচ, জগ, ঝুড়ি, খেলনা থেকে শুরু করে ডাইনিং টেবিল, চেয়ার, সোফাসেট, আলমারি, খাটসহ ঘর-গৃহস্থালির নিত্যব্যবহার্য প্রায় সব কিছুই পাওয়া যাচ্ছে। প্লাস্টিকপণ্যের ক্রেতাদের বেশির ভাগই নারী। ঘর-গৃহস্থালির জন্য তারা এসব সংগ্রহ করছে।    

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে চলা এবারের মেলায় গুণগত মানের এসব প্লাস্টিকপণ্যের দাম একই ডিজাইনের কাঠ, স্টিল, কাচ বা সিরামিকের পণ্যের চেয়ে কম। মেলায় আমদানি করা প্লাস্টিকপণ্যের চেয়ে দেশি প্রতিষ্ঠানের উৎপাদিত প্লাস্টিকপণ্যের চাহিদা বেশি। বাণিজ্য মেলা সরেজমিনে ঘুরে প্লাস্টিকপণ্যের বেচাকেনার এমন চিত্র দেখা যায়।   

প্লাস্টিকপণ্য উৎপাদনকারী দেশের অন্যতম প্রতিষ্ঠান প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের সহকারী মহাব্যবস্থাপক জিয়াউল হক কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘প্রতিবছরের মতো এবারও প্রাণ-আরএফএলের একাধিক স্টল নেওয়া হয়েছে। ক্রেতার চাহিদা বিবেচনায় গত বছরের বাণিজ্য মেলার চেয়ে এবার প্লাস্টিকপণ্যের স্টল বেশি নেওয়া হয়েছে। আরএফএলের প্লাস্টিকপণ্যের ক্রেতাদের বেশির ভাগ নারী। আমরা বিভিন্ন ছাড় দিয়ে ক্রেতা আকর্ষণের চেষ্টা করছি।’

বাণিজ্য মেলায় দেশি-বিদেশি সব প্রতিষ্ঠানই প্লাস্টিকপণ্য বিক্রিতে বিভিন্ন ছাড় দিচ্ছে। অনেক প্রতিষ্ঠান ১০ থেকে ২৫ শতাংশ পর্যন্ত মূল্য ছাড় দিচ্ছে। প্রাণ-আরএফএল, বেঙ্গল গ্রুপ, হ্যামকোসহ বিভিন্ন নামিদামি প্রতিষ্ঠান শুধু বাণিজ্য মেলার জন্য বিশেষ মূল্য ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছে। অনেকে আবার একসঙ্গে ন্যূনতম দুই হাজার টাকার পণ্য কিনলে মোট মূল্যের ১০ শতাংশ কম নিচ্ছে। প্লাস্টিকপণ্যের মূল্য ১০ থেকে পাঁচ হাজার টাকা বা এরও বেশি। 

প্রাণ-আরএফএল এবারের বাণিজ্য মেলায় প্রায় আড়াই হাজার ডিজাইনের পণ্য নিয়ে এসেছে। পুরনো সব পণ্যের পাশাপাশি এবারের বাণিজ্য মেলার জন্য এনেছে সম্পূর্ণ নতুন ধরনের পাঁচ শতাধিক বিভিন্ন ধরনের পণ্য। একসঙ্গে অনেক পণ্য কিনলে উপহার হিসেবে এটা-ওটা দিচ্ছে। আরএফএল দুই থেকে আড়াই বা তিন হাজার টাকায় স্বচ্ছ চেয়ার বিক্রি করছে। তাদের  থালা, বাটি, গ্লাস, ভাতের ডিশ, তরকারির ডিশ গড়ে ২০ থেকে ২০০ বা আড়াই শ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। এসব পণ্য সব শ্রেণির গৃহিণীদের কাছে আকর্ষণীয়। বাণিজ্য মেলায় প্রাণ-আরএফএলের প্যাভিলিয়নে এসে পণ্য না কিনে ফিরছে এমন সংখ্যা খুব কম।

এ ছাড়া অনেক প্লাস্টিকপণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান পণ্য কিনলে লটারিতে বিদেশ যাওয়ার টিকিটও দিচ্ছে। এসব প্রতিষ্ঠানের বিক্রিও ভালো। অনেক প্রতিষ্ঠান একসঙ্গে ১০-১২টি পণ্য কিনলে মূল্য ছাড় দিচ্ছে। ১০ হাজার টাকার পণ্য কিনলে সর্বোচ্চ এক হাজার টাকা কম নিচ্ছে কোনো কোনো প্রতিষ্ঠান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা