kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ জানুয়ারি ২০২০। ৭ মাঘ ১৪২৬। ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

বাংলাদেশের প্রস্তাব গৃহীত সাধারণ পরিষদে

শান্তির সংস্কৃতি

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রতি বছরের মতো এবারও জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে বাংলাদেশ উত্থাপিত ‘শান্তির সংস্কৃতি’ প্রস্তাব সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়েছে। জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা গত বৃহস্পতিবার রাতে সাধারণ পরিষদে বাংলাদেশের পক্ষে প্রস্তাবটি উত্থাপন করেন। এ সময় তিনি বিশ্বব্যাপী শান্তির সংস্কৃতিকে এগিয়ে নিতে জাতিসংঘের সব সদস্য রাষ্ট্র ও সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের প্রতি আহ্বান জানান।

রাবাব ফাতিমা বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণের ক্ষমতায়ন ও শান্তির সংস্কৃতির ধারক ও বাহক। তাঁর প্রথমবারের সরকারের সময় ১৯৯৯ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সর্বসম্মতিক্রমে ৫৩/২৪৩ নম্বর প্রস্তাব অর্থাৎ এই ‘শান্তির সংস্কৃতি’ প্রস্তাবটি গ্রহণ করে। সেই থেকে প্রতি বছর বাংলাদেশ এই প্রস্তাব জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে উপস্থাপন করে আসছে এবং যা প্রতি বছরই সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হচ্ছে।’

জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন জানায়, এবারের প্রস্তাবটি গ্রহণের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় শান্তির সংস্কৃতির ২০ বছরপূর্তি উদ্‌যাপন কে শুধু স্বাগত জানায়নি, বরং একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা ও এজেন্ডা ২০৩০-এর পূর্ণ বাস্তবায়নে এর প্রয়োজনীয়তাকেও স্বীকৃতি দিয়েছে।

এ বছর বিশ্বের ১২৬টি দেশ বাংলাদেশের এই প্রস্তাব কো-স্পন্সর করেছে যা এ যাবৎকালের সর্বোচ্চ। এই সমর্থন বিশ্বশান্তির ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অবদানের প্রতি বিশ্ববাসীর গভীর আস্থারই বহিঃপ্রকাশ।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা