kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

ব্যাংক কর্মকর্তার নামে চার শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার মামলা

লালমনিরহাট প্রতিনিধি   

৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



লালমনিরহাটে পঞ্চাশোর্ধ্ব এক ব্যাংক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে চার শিশুকে যৌন নিপীড়ন ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মামলা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাতে জেলার কালীগঞ্জ থানায় মামলাটি হয়। চার শিশুর মধ্যে তিন শিশুর শারীরিক পরীক্ষার জন্য লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে তিন সদস্যের একটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

অভিযুক্ত ব্যাংক কর্মকর্তার নাম মোবারক আলী। তাঁর বাড়ি লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায়। তিনি অগ্রণী ব্যাংকের লালমনিরহাট শাখায় প্রিন্সিপাল অফিসার হিসেবে কর্মরত। অভিযোগ ওঠার পর গত সোমবার থেকে তিনি তাঁর কর্মস্থলে যাচ্ছেন না।

তিন শিশুর পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত দুই মাসের মধ্যে তারা ব্যাংক কর্মকর্তা মোবারকের নির্যাতনের শিকার হয়েছে। তাদের মধ্যে একটি শিশুকে একাধিকবার যৌন নিপীড়ন করা হয়েছে। এই শিশুদের মধ্যে দুটির বয়স সাত ও অন্যটির বয়স ছয় বছর।

বাড়ি থেকে পান এনে খাওয়ানোর কথা বলে বা বিভিন্ন কৌশলে তাদের নিজের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যান মোবারক। অনেক সময় জোর করেও শিশুদের ধরে নিয়ে যান তিনি। এরপর বাড়ির সবার অজান্তে ধান-চাল রাখার ঘরে তাদের যৌন নিপীড়ন ও ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়। এমনকি ঘটনা বাড়িতে না জানানোর জন্য নানাভাবে হুমকিও দেওয়া হয় শিশুদের।

একটি শিশুর বাবা জানান, গত রবিবার রাতে বিষয়টি তাঁরা প্রথম জানতে পারেন। পরে আরো দুই শিশুকে যৌন নিপীড়নের ঘটনা জানাজানি হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই শিশু তিনটির ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর মোবারকের বিরুদ্ধে আরো অভিযোগ উঠতে থাকে। এর মধ্যে তাঁর সম্পর্কে নাতনির সঙ্গেও এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। অন্যদিকে গত ছয় মাসে ওই এলাকার আরো অন্তত দুটি শিশু মোবারকের যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে। শুক্র ও শনিবার কিংবা কোনো ছুটির দিন মোবারক এ অপকর্ম করতেন বলে জানা গেছে।

পরিবারগুলোর সদস্যরা জানান, তাঁরা প্রথমে স্থানীয়ভাবে সমাধানের চেষ্টা চালিয়েছিলেন; কিন্তু কোথাও বিচার না পেয়ে গত সোমবার রাতে তাঁরা কালীগঞ্জ থানায় যান। কিন্তু তাঁরা থানায় যাওয়ার আগে ওই দিন উল্টো মোবারক ও তাঁর লোকজন তাঁদের বিরুদ্ধে জমিসংক্রান্ত ও মানহানি মামলা দিতে থানায় হাজির হন। এ অবস্থায় ভয়ে তাঁরা থানা থেকে চলে আসেন। পরদিন গত মঙ্গলবার দুপুরে শিশুদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। খবর পেয়ে রাতে পুলিশ শিশুদের অভিভাকদের থানায় ডেকে নিয়ে মোবারকের বিরুদ্ধে এজাহার গ্রহণ করে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা