kalerkantho

মঙ্গলবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১২ রবিউস সানি     

সংক্ষিপ্ত

চলত দলবদ্ধ ধর্ষণ, ছেঁকায় পুড়ত শরীর

সৌদিফেরত নারী নির্বাক

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি   

৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



‘একটি কক্ষে আটকে অমানুষিক নির্যাতনের খড়্গ নামত। সেখানে প্রতিদিন দলবেঁধে চার-পাঁচজন ধর্ষণ করত তাঁকে। ওই সময় চেতনা হারিয়ে ফেলতেন তিনি। এ সময় জ্বলন্ত সিগারেট দিয়ে তাঁর শরীর ও স্পর্শকাতর স্থান পুড়িয়ে দেওয়া হতো।’ গতকাল মঙ্গলবার দুুপুরে স্থানীয় ইউএনও কার্যালয়ে বসে এমনই বীভৎস ও লোমহর্ষক নির্যাতনের বর্ণনা দিচ্ছিলেন মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের গৃহবধূর (২২) স্বামী। স্থানীয় দালালের ফাঁদে পা দিয়ে সৌদি আরবে গৃহকর্মীর কাজ করতে গিয়ে নির্যাতনের শিকার হয়ে গত ২৭ নভেম্বর বাড়ি ফেরেন ওই নারী। স্বামী বলেন, ‘উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় ছয় দিন আগে বাড়ি ফিরে আমাকে লোমহর্ষক নির্যাতনের বর্ণনা দিতে গিয়ে জ্ঞান হারায় সে। এর পর থেকে সে নির্বাক। লোভনীয় বেতনে গৃহকর্মীর চাকরি নিয়ে সৌদি আরব গিয়েছিল। দেশে ফেরার পর বাড়িতে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়া হয়। টাকার অভাবে চিকিৎসা না করিয়েই গত রবিবার ছাড়পত্র নিয়ে তাকে বাসায় নিয়ে আসি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা