kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৫ রবিউস সানি          

ফরিদপুরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

নেত্রকোনায় ধর্ষণের অভিযোগে কিশোর আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর ও হাওরাঞ্চল প্রতিনিধি   

২৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার মানিকদহ ইউনিয়নে বিয়ের আশ্বাসে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল শুক্রবার ওই ছাত্রী বাদী হয়ে ভাঙ্গা থানায় মামলা করে। অন্যদিকে নেত্রকোনার খালিয়াজুরী উপজেলায় চার বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে এক কিশোরকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সন্ধ্যায় খালিয়াজুরীর মেন্দিপুর গ্রামসংলগ্ন ত্রিমোহনী ব্রিজ এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

ভাঙ্গায় স্কুলছাত্রীর করা মামলার পলাতক আসামি উপজেলার মানিকদহ ইউনিয়নের তুলসীকাটা গ্রামের ইরাকপ্রবাসী আল-আমীন (২৫)। তিনি ছুটিতে গত দুই মাস ধরে বাড়িতে অবস্থান করছিলেন।

পুলিশ জানায়, গত বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় স্কুলের ওই ছাত্রীকে (১৬) বিয়ের আশ্বাস দিয়ে আল-আমীন তার বাড়িতে রাত কাটান এবং তাকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যান। পরদিন ছাত্রী ভাঙ্গা থানায় মামলা করে।

অন্যদিকে খালিয়াজুরীতে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে আটক কিশোর (১৪) উপজেলার একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র।

শিশুর মায়ের মৌখিক অভিযোগের বরাত দিয়ে খালিয়াজুরী থানার ওসি এ টি এম মাহমুদুল হক জানান, গত সোমবার ভোর ৬টার দিকে শিশুটির মা তাকে ঘুমে রেখে বাড়ির পেছনে যান। এ সময় অভিযুক্ত কিশোর ঘরে ঢুকে ঘুমন্ত শিশুটিকে ধর্ষণ করে। শিশুর কান্নার শব্দে তার মাকে দৌড়ে ঘরের দিকে আসতে দেখে কিশোর পালিয়ে যায়। বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য অভিযুক্তের বাবাসহ গ্রামের কয়েকজন শিশুটির বাবাকে বুঝিয়ে শান্ত রাখে। কিন্তু বিষয়টি মেনে নিতে না পেরে শিশুর মা গতকাল বিকেলে শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য পাশের মোহনগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা