kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৫ রবিউস সানি          

এনএসআইয়ে নিয়োগ

১৮ জন ভুয়া পরীক্ষার্থীকে সাজা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) মাঠ পর্যায়ের গোয়েন্দা সদস্য ও কর্মকর্তা পদে নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা চলাকালে ১৮ জন ভুয়া পরীক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর মিরপুর সেনানিবাসে মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি (এমআইএসটি) ও বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসে (বিইউপি) পরীক্ষা কেন্দ্রে ওই নিয়োগ পরীক্ষা চলাকালে তাঁদের আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে সবাই দোষ স্বীকার করায় আদালত ১৬ জনকে এক মাসের এবং দুজনকে ১৫ দিনের সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

পল্লবী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবদুল মাবুদ বলেন, ‘আটক হওয়া ১৮ জনের মধ্যে ১৬ জনকে এক মাসের কারাদণ্ড এবং দুজনকে ১৫ দিনের কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। পরে থানা পুলিশের হেফাজতে দেওয়া হলে আমরা তাদের কারাগারে পাঠিয়েছি।’

এনএসআইয়ের এক কর্মকর্তা জানান, যাঁদের আটক করা হয়েছে, তাঁদের বেশির ভাগ ঢাকা ও রাজশাহী বিশ্বিবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তাঁদের অনেকেই প্রকৃত চাকরিপ্রার্থীর সঙ্গে মোটা অঙ্কের টাকার চুক্তিতে পরীক্ষা দিচ্ছিলেন, আবার কেউ কেউ বন্ধু ও আত্মীয়তার সূত্রে এই কারসাজিতে জড়িয়ে পড়েন।

এনএসআইয়ের অন্য এক কর্মকর্তা বলেন, পরীক্ষা চলাকালে পরীক্ষার্থীর নাম, স্বাক্ষর ও ছবিতে গরমিল থাকায় তাঁদের প্রথমে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। একপর্যায়ে তাঁদের কথাবার্তায় গরমিল পাওয়া যায়। যাঁদের আটক করা হয়েছে তাঁরা হলেন শাহিন আলম, ইফরাত হোসেন, শাহিন তালুকদার, কাউছার আলী, রাফি সাদমান, বাহারুল ইসলাম, আলমগীর হোসেন, সোহেল আহমেদ, শাহাদত হোসেন, শহীদুল্লাহ শাহজামাল, গোলাম রব্বানী, এ এস এম ইছা খান, মাজেদুল ইসলাম, হাবিবুল বাশার, শরিফুল ইসলাম, রফিক মিয়া ও আব্দুর রহিম।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা