kalerkantho

মঙ্গলবার । ১১ কার্তিক ১৪২৭। ২৭ অক্টোবর ২০২০। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

দেশি কাপড়ে বিদেশি ব্র্যান্ডের সিল ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

নরসিংদী প্রতিনিধি   

২২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নরসিংদীতে দেশি কাপড়ে বিদেশি ব্র্যান্ডের ট্রেডমার্ক (সিল, ছাপ) ব্যবহার করে প্রতারণার দায়ে মো. রবিউল আলম শাওন (৩১) নামের এক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১১। গত বুধবার গভীর রাতে সদর উপজেলার শেখেরচর এলাকায় তাঁর কারখানায় অভিযান চালিয়ে ট্রেডমার্ক তৈরির সরঞ্জাম, কাঁচামাল, কাপড় জব্দ করাসহ তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় তাঁর বিরুদ্ধে নরসিংদী সদর মডেল থানায় গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ট্রেডমার্ক আইনে ও প্রতারণার একটি মামলা করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃত রবিউল আলম শাওন শেখেরচরের সাবেক ইউপি সদস্য মো. অলিউল্লাহর ছেলে ও শীলমান্দি ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুল বাকিরের ভাতিজা।

গতকাল র‌্যাব-১১ ভারপ্রাপ্ত কম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দীন চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রবিউল আলম শাওন দেশের বৃহত্তম পাইকারি কাপড়ের হাট শেখেরচর বাবুরহাটের ব্যবসায়ী। বাবুরহাটের পাশেই তাঁর বাড়ি। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন দেশি কাপড়ের কারখানা থেকে কাপড় কিনে তাঁর কারখানায় মজুদ করে রেমন্ড, টরে, অরবিন্দ, গিজাসহ বিভিন্ন বিখ্যাত, আন্তর্জাতিক মানের কম্পানির নকল ছাপ ব্যবহার করে বাবুরহাট বাজারে বেচতেন। এমন অভিযোগে বুধবার রাতে শাওনের কারখানায় অভিযান চালিয়ে ১৪টি বড় কাঠের ফ্রেম দিয়ে তৈরি ডাইস, আনুমানিক ছয় হাজার মিটার কাপড়, কাপড়ে ছাপার কাজে ব্যবহৃত দুটি আয়রন, ৩০০ গ্রাম সোনালি রং ও ৪০টি সোনালি রঙের ফুয়েল জব্দ করা হয়।

র‌্যাব কর্মকর্তা জসিম উদ্দীন চৌধুরী বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত শাওন জানান, তিনি দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণামূলকভাবে এ ব্যবসা চালাচ্ছিলেন। অন্য ব্যবসায়ীরা বিষয়টি জেনেও শাওন স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারেননি। ভোক্তাদের কাছে ভালো ব্র্যান্ডের কাপড়ের চাহিদা থাকায় শাওন নিম্নমানের কাপড়ে বিখ্যাত ব্র্যান্ডের ছাপ দিয়ে বেশি মূল্যে বাজারে বিক্রি করতেন।

মন্তব্য