kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ কার্তিক ১৪২৭। ৩০ অক্টোবর ২০২০। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

হত্যা মামলার আসামির বাড়িতে অভিযান

৫০ পিস টেঁটা ফেসবুকে হয়ে গেল ২১০ পিস!

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে হত্যা মামলার তিন আসামির বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৫০টি টেঁটা-বল্লম উদ্ধার করা হলেও তদন্ত কর্মকর্তা তাঁর ব্যক্তিগত ফেসবুক স্ট্যাটাসে উল্লেখ করেছেন ২১০টি। এ নিয়ে আসামিদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। অবশ্য ওসি তাঁর স্ট্যাটাসে বলেনি কোন আসামির বাড়ি থেকে কতটি টেঁটা উদ্ধার করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার বালুচর ইউনিয়নের পূর্ব চান্দেরচর গ্রামে গত ৮ নভেম্বর জমিসংক্রান্ত বিরোধে আমির আলী ওরফে মীর আলীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় ২০ জনকে আসামি করে সিরাজদিখান থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহত মীর আলীর স্ত্রী। মামলার পর আসামিরা পলাতক রয়েছেন। গত রবিবার রাতে পলাতক আসামিদের বাড়িতে সিরাজদিখান থানার ওসি আজিজুল হকের নেতৃত্বে অভিযান চালায় পুলিশ। অভিযানে আসামিদের আটক করতে না পেরে তাঁদের বাড়ি থেকে প্রায় ৫০টি টেঁটা-বল্লম উদ্ধার করা হয়। কিন্তু গতকাল সোমবার ওসি তাঁর ব্যক্তিগত ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে ২১০ পিস টেঁটা-বল্লম উদ্ধার করা হয়েছে বলে দাবি করেন। এ নিয়ে এলাকায় নানা গুঞ্জন চলছে।

সিরাজদিখান থানার ওসি ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আজিজুল হক বলেন, আসামিপক্ষের লোকজন কী বলল সেটা আপনার শোনা উচিত নয়। আমি যেটা বলছি সেটাই সঠিক। আসামি সুমনের বাড়ি থেকে ১৭৫টি, আনোয়ারের বাড়ি থেকে ২৫টি এবং ইয়াসিনের বাড়ি থেকে ১০টি, মোট ২১০ টি টেঁটা-বল্লম উদ্ধার করা হয়েছে।

মন্তব্য