kalerkantho

রবিবার  । ১৫ চৈত্র ১৪২৬। ২৯ মার্চ ২০২০। ৩ শাবান ১৪৪১

কাঁচা খেজুরের রসে নিষেধাজ্ঞা

নিপাহ ভাইরাসে মৃত্যু ২১৭ জনের

চলতি বছরেও ৫ জনের মৃত্যু; কাঁচা রসের উৎসব পরিহারের পরামর্শ
রসের হাঁড়ি নিরাপদ রাখার তাগিদ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কাঁচা খেজুরের রস পানের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইইডিসিআর। সেই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, দেশে এ পর্যন্ত ৩১৩ জন নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। মারা গেছে ২১৭ জন। এ পরিসংখ্যান ২০০১ সাল থেকে এখন পর্যন্ত। এর মধ্যে চলতি বছরে আক্রান্ত হয়েছে আটজন এবং তাদের মধ্যে মারা গেছে পাঁচজন। গতকাল সোমবার এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়।

ব্রিফিংয়ে আইইডিসিআরের পরিচালক অধ্যাপক ড. মিরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, এ বছর শীত মৌসুমে কাঁচা খেজুরের রস যেন মানুষ পান না করে সেদিকে সর্তক থাকতে হবে। ফুটিয়ে বা জ্বাল দিয়ে পান করতে কোনো অসুবিধা নেই; ফোটানো রস নিরাপদ। কাঁচা খেজুরের রসে বাদুড়ের মাধ্যমে নিপাহ ভাইরাস থাকার আশঙ্কা খুবই বেশি। বাদুড়ের লালা বা প্রস্রাবের মাধ্যমে গাছে বাঁধা রসের হাঁড়িতে নিপাহ ভাইরাস ছড়ায়।

তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ঢাকাসহ বিভিন্ন জায়গায় শীতকালীন ঐতিহ্য হিসেবে কাঁচা রস পানের উৎসব করা হয়। এটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। এ ধরনের কাঁচা রসের উৎসব পরিহার করা জরুরি। কারণ কাঁচা রস পানের পর নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হলে তাকে বাঁচানো কঠিন। এতে মৃত্যুর হার প্রায় ৭০ শতাংশ। একইভাবে বাদুড়ে খাওয়া অন্য কোনো ফলও খাওয়া যাবে না।

অনুষ্ঠানে আইইডিসিআরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. এস এম আলমগীর হোসেন, ডা. মনজুর হোসেন খান ও ডা. শারমিন সুলতানা বক্তব্য দেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা