kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জানুয়ারি ২০২০। ১৪ মাঘ ১৪২৬। ২ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

ডিএনসিসির ভ্রাম্যমাণ আদালত

খেলার মাঠে মেলা বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কর্তৃপক্ষের অনুমতি না নিয়ে খেলার মাঠে মেলা আয়োজন করায় তা বন্ধ করে দিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। মোহাম্মদপুর খেলার মাঠে হতে যাওয়া আরেকটি মেলার আয়োজকদের সতর্ক করে দিয়েছেন ডিএনসিসির ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার মেলা বন্ধ করা ছাড়াও লালমাটিয়া ও ফার্মগেট এলাকায় শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে।

ডিএনসিসি সূত্রে জানা যায়, লালমাটিয়ার জাকির হোসেন রোড মাঠ, সলিমুল্লাহ রোড মাঠ, শহীদ পার্ক মাঠ ও মোহাম্মদপুর ক্লাব মাঠে দীর্ঘদিন ধরে মেলার আয়োজন করে আসছিল স্থানীয় কিছু লোক। মেলার কারণে খেলার মাঠ ব্যবহার করতে পারছিল না এলাকাবাসী। এ ছাড়া মেলার পর মাঠ অপরিচ্ছন্ন এবং খেলাধুলার জন্য অনুপযোগী হয়ে যেত। স্থানীয় কাউন্সিলররা মৌখিকভাবে মেলা বন্ধ করতে বললেও কর্ণপাত করেননি প্রভাবশালী লোকজন। গতকাল সিটি করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ারের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। ওই সময় জাকির হোসেন রোডের পার্কে চলা মেলা বন্ধ করে দেওয়া হয়। এ ছাড়া মোহাম্মদপুর ক্লাব মাঠে আরেকটি মেলা আয়োজনের প্রস্তুতি নিচ্ছিল ক্লাব কর্তৃপক্ষ। খেলার মাঠে মেলা আয়োজন করবে না—এই মর্মে মুচলেকা নেওয়া হয় ক্লাবটির কর্মকর্তাদের কাছ থেকে। একই সঙ্গে মোহাম্মদপুর এলাকায় অবৈধভাবে স্থাপন করা দুই শতাধিক অস্থায়ী স্থাপনা উচ্ছেদ করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ ছাড়া ফার্মগেট ফুট ওভারব্রিজ থেকে সব হকার উচ্ছেদ করেছে ডিএনসিসি। সংস্থাটির আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ হোসেনের নেতৃত্বে ওই এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। উচ্ছেদ অভিযানে ডিএনসিসির প্যানেল মেয়র আলেয়া সারোয়ার ডেইজী উপস্থিত ছিলেন। তিনি কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘মেলার কারণে দীর্ঘদিন ধরে খেলার মাঠ ব্যবহার করতে পারছিল না এলাকাবাসী। তাই একটি মেলা থেকে স্থাপনা সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে সম্ভাব্য আরেকটি মেলার আয়োজকদের কাছ থেকে মুচলেকা নেওয়া হয়েছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা