kalerkantho

রবিবার। ৫ আশ্বিন ১৪২৭ । ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০। ২ সফর ১৪৪২

বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

সাবেক ভিসির ‘দুর্নীতি’ তদন্তে নেমেছে দুদক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাবেক ভিসির ‘দুর্নীতি’ তদন্তে নেমেছে দুদক

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের বিরুদ্ধে ওঠা অর্থ আত্মসাৎ ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধানে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল বুধবার দুদক পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্যাহকে অভিযোগের অনুসন্ধান কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে কমিশন।

দুদক সূত্রে জানা গেছে, সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মাত্রাতিরিক্ত ভর্তি ফি, হল ভাড়া, ক্রেডিট ফি, চিকিৎসা ফি আদায় ও নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ রয়েছে নাসিরউদ্দিনের বিরুদ্ধে। আন্দোলনের মুখে গত ৩০ সেপ্টেম্বর উপাচার্য পদ থেকে পদত্যাগ করেন তিনি। তবে পদত্যাগের আগের দিনই ২৯ সেপ্টেম্বর ক্যাম্পাস ছাড়েন নাসিরউদ্দিন।

এর আগে ১১ সেপ্টেম্বর ফেসবুকে একটি পোস্ট দেওয়ার কারণে একটি দৈনিকের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ও আইন বিভাগের এক শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হলে নাসিরউদ্দিনের বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। এর মধ্যেই এক ছাত্রী ও নাসিরউদ্দিনের কথোপকথনের একটি অডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। অডিওতে ছাত্রীকে বকাঝকা ও হুমকি-ধমকির পাশাপাশি তাঁর বাবাকে নিয়েও অশালীন মন্তব্য করেন নাসিরউদ্দিন।

১৮ সেপ্টেম্বর শিক্ষার্থীদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হলেও ২১ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়। ২১ সেপ্টেম্বর নাসিরউদ্দিনের মদদপুষ্ট বহিরাগত সন্ত্রাসীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায়। এতে আহত হন ২০ জন। এ ঘটনার পর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে তদন্ত কমিটি করে ইউজিসি। তদন্তদল নাসিরউদ্দিনকে সরিয়ে দেওয়ার সুপারিশ করে; এরপর তিনি পদত্যাগ করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা