kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৩০ জানুয়ারি ২০২০। ১৬ মাঘ ১৪২৬। ৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

সড়কে সাইমের দেহ, মায়ের সামনেই প্রাণ গেল আরেক শিশু মিলনের

সাত জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তাসহ নিহত ৮

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



মহাসড়কের মাঝখানে পড়ে আছে স্কুলের পোশাক পরা একটি ছোট্ট শিশুর নিথর শরীর। পাশেই কার্টুনের ছবিওয়ালা স্কুলব্যাগটি। তার ছড়ানো হাত-পা, রক্তমাখা মুখ দেখলেই মন কেঁদে ওঠে। প্রথম শ্রেণিতে পড়া এই শিশু গতকাল বুধবার স্কুল থেকে সহপাঠীদের সঙ্গে বাড়ি ফেরার পথে ট্রাকের চাপায় নিহত হয়েছে। একই দিন রাজধানী ঢাকার যাত্রাবাড়ীতে মায়ের সামনে বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেছে এক শিশুর।

এ ছাড়া কুমিল্লা, বগুড়ার শাজাহানপুর, রাজবাড়ী, ফরিদপুরের মধুখালী ও সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটা উপজেলায় গত মঙ্গলবার রাতে ও গতকাল সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তা, কলেজছাত্রসহ পাঁচজন নিহত হয়েছে। মধুখালীর দুর্ঘটনায় আহত আরো দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে একই পরিবারের চারজনের মৃত্যু হলো। প্রত্যক্ষদর্শী, থানার পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

পঞ্চগড় : নিহত শিশুটির নাম আবু বক্কর সিদ্দিক ওরফে সাইম (৭)। সে পঞ্চগড় সদর উপজেলার সাতমেরা ইউনিয়নের চেকরমারি এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে ও অমরখানা দারিকামারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র। পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানায়, দুপুরে বিদ্যালয় ছুটির পর সহপাঠীদের সঙ্গে মহাসড়ক ধরে বাড়ি ফিরছিল সাইম। বিদ্যালয় থেকে তার বাড়ির দূরত্ব প্রায় আধাকিলোমিটার। পথে চাওয়াই সেতুর পূর্বে পঞ্চগড়-তেঁতুলিয়া মহাসড়ক পার হওয়ার সময় পঞ্চগড় থেকে তেঁতুলিয়াগামী একটি ট্রাক তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে হাইওয়ে পুলিশ লাশ আইনি প্রক্রিয়া শেষে পরিবারের কাছে দেয়। শিশুটির মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। দুই ভাই এক বোনের মধ্যে ছোট সাইম।

তেঁতুলিয়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল কাদের জিলানী বলেন, চালক পালিয়ে গেলেও ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ঢাকা : যাত্রাবাড়ীর সামাদ মার্কেটের সামনে দুপুরে নিহত শিশুটির নাম মিলন (৬)। সে পরিবারের সঙ্গে পুরান ঢাকার ধোলাইখালে থাকত। তার বাড়ি গাইবান্ধায়। তিন ভাইয়ের মধ্যে সে ছোট। তার বাবা রিকশাচালক, মা নিমুরি বেগম ছুটা গৃহকর্মীর কাজ করেন। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মিলন মায়ের হাত ধরে রাস্তা পার হচ্ছিল। এ সময় তুরাগ পরিবহনের একটি বাস ধাক্কা দিলে সে গুরুতর আহত হয়। তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতলে নিয়ে গেলে চিকিত্সক মৃত ঘোষণা করেন।

যাত্রাবাড়ী থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম জানান, বাসটিসহ চালককে আটক করা হয়েছে। শিশুটির লাশ ঢামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। মিলনের খালাতো ভাই মো. সাদ্দাম জানান, ছেলেকে হারিয়ে মিলনের মা বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন।

কুমিল্লা : কুমিল্লা-নোয়াখালী মহাসড়কের পদুয়ার বিশ্বরোডসংলগ্ন মিস্ত্রি পুকুরপাড় এলাকায় গতকাল রাতে ট্রাকচাপায় পুলিশ কর্মকর্তা রিঙ্কন বড়ুয়া নিহত ও একজন আহত হন। রিঙ্কনের বাড়ি চট্টগ্রামের রাউজানের নোয়াপাড়া এলাকায়। তিনি চাঁদপুরের কচুয়া থানায় কর্মরত।

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার তদন্ত কর্মকর্তা খাদেমুল বাহার বলেন, একটি মোটরসাইকেলে করে কুমিল্লা থেকে চাঁদপুরে যাওয়ার সময় মোটরসাইকেলটি সড়কের গর্তে পড়ে গেলে রিঙ্কন বড়ুয়া ছিটকে পড়েন। তখন পেছন থেকে দ্রুতগতিতে আসা একটি ট্রাক চাপা দিলে তাঁর মৃত্যু হয়। কচুয়া থানার ওসি অলিউর রহমান বলেন, ‘রিঙ্কন বড়ুয়া ৫ নভেম্বর থেকে ছুটিতে ছিলেন।’

ফরিদপুর : মধুখালী উপজেলার বাগাট ইউনিয়নের বাগাট উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় একটি পিকআপ ব্যাটারিচালিত রিকশাভ্যানকে চাপা দিলে দুজন নিহত ও চারজন আহত হয়। পরে আরো দুজনের মৃত্যু হয়েছে। দুর্ঘটনার পর ফরিদপুরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে ঝিনুক পাল (৫) ও গতকাল ভোরে ঢাকা নেওয়ার পথে কৌশিক পাল (১২) মারা গেছে। তারা মধুখালীর কোরকদী পালপাড়ার তাপস পালের মেয়ে ও ছেলে। ঘটনাস্থলে মারা গিয়েছিল তাপস পালের মা দিপালী পাল (৬০) ও ভাই সঞ্জয় পালের ছেলে জয় পাল (৮)। এ দুর্ঘটনায় আহত সঞ্জয়ের স্ত্রী গীতা পাল (২৮) ও মেয়ে প্রিয়া পাল (১০ মাস) ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। দুই ভাই তাপস ও সঞ্জয় সেনাবাহিনীতে কর্মরত।

শাজাহানপুর (বগুড়া) : মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শাজাহানপুর উপজেলার চকজোড়া গ্রামের সড়কের পাশে গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগলে চালক কলেজছাত্র এনামুল হক (২৪) নিহত হন। তিনি চকজোড়ার মোজাহার আলীর ছেলে এবং বগুড়া সরকারি কলেজের ছাত্র।

রাজবাড়ী : সদর উপজেলার খানখানাপুর ইউনিয়নের ছোট ব্রিজ এলাকায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে মঙ্গলবার রাতে পিকআপ থেকে পড়ে পান চাষি বিশ্বজিৎ বিশ্বাস (৫২) নিহত হন। তিনি মাগুরার নাওডাঙ্গা গ্রামের উত্স বিশ্বাসের ছেলে।

সাতক্ষীরা : পাটকেলঘাটা বাজারসংলগ্ন আচিনতলা নামক স্থানে গতকাল সকালে নছিমনের ধাক্কায় মোটরসাইকেলচালক অমিত দেবনাথ (৫২) নিহত হন। তিনি তালা উপজেলার খলিশখালী গ্রামের জগেন্দ্র দেবনাথের ছেলে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা