kalerkantho

রবিবার । ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৭ রবিউস সানি                    

৯ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৯ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা

বাংলাদেশ রেলওয়েতে গত ৯ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটেছে  সোমবার রাতে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবার মন্দবাগ রেলস্টেশনে এ দুর্ঘটনার প্রাথমিক কারণ হিসেবে ধরা পড়েছে তূর্ণা নিশীথা ট্রেনের চালকের আগে থেকে লাল সংকেত বাতি দেখতে না পাওয়া।

২০১০ সালের ৮ ডিসেম্বর নরসিংদী রেলস্টেশনে চট্টলা ও মহানগর গোধূলির সংঘর্ষে প্রথম দিনেই ১২ জনের প্রাণ ঝরেছিল। ওই দুর্ঘটনার কারণ ছিল সিগন্যাল অমান্য করা। সেদিন চট্টলা ট্রেনের চালক সিগন্যাল অমান্য করেছিলেন।

বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক শামছুজ্জামান গতকাল বিকেলে কালের কণ্ঠকে জানান, ট্রেন দুর্ঘটনায় গত ২৩ জুন মৌলভীবাজারের বরমচালে চারজনের প্রাণহানি ঘটেছিল। এর আগে টঙ্গীতে ট্রেনের ছাদ থেকে পড়ে দুজনের প্রাণহানি ঘটে। গত ৯ বছরের ব্যবধানে গত সোমবার রাতের ট্রেন দুর্ঘটনায় সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটেছে। 

বাংলাদেশ রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৮ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত ১১ বছরে ট্রেন দুর্ঘটনায় ৪৩৮ জনের প্রাণহানি ঘটে। সংঘর্ষ ও লাইনচ্যুতিসহ দুর্ঘটনা পাঁচ হাজার ২৯৩টি। সবচেয়ে বেশি, ৪০ জনের প্রাণহানি ঘটে ২০০৬ সালের ১১ জুলাই জয়পুরহাটে রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলীয় জোনের দ্রুতগামী আন্ত নগর রূপসা এক্সপ্রেসের সঙ্গে যাত্রীবাহী বাসের সংঘর্ষে। ট্রেন লাইনচ্যুতির বড় ঘটনা ঘটে ১৯৮৯ সালে—তখন গাজীপুরের পুবাইলের কাছে এবং চট্টগ্রামের কুমিরায় আলাদা দুর্ঘটনায় ৮১ জন নিহত হয়। 

পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, ২০১৩ সাল থেকে গত বছরের মে পর্যন্ত ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটেছে এক হাজার আটটি। এসব দুর্ঘটনায় ১১৫ জন নিহত হয়। এ ছাড়া গত ২৩ জুন বরমচালে ট্রেন দুর্ঘটনায় চারজনের প্রাণহানি ঘটে। ২০১৩ সালে ১৬৬টি, ২০১৪ সালে ২৪২টি, ২০১৫ সালে ১৫৩টি, ২০১৬ সালে ১৩১টি, ২০১৭ সালে ১৪০টি, ২০১৮ সালে ১৫০টি আর চলতি বছরের মে পর্যন্ত ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটে ২৬টি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা