kalerkantho

সোমবার । ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১১ রবিউস সানি ১৪৪১     

ওবায়দুল কাদের বললেন

দুঃসময়ের কর্মী চাই, বসন্তের কোকিল চাই না

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘চাঁদাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, লুটেরা, সন্ত্রাসী, দুর্নীতিবাজরা সাবধান। আওয়ামী লীগে এদের ঠাঁই হবে না। মনে রাখবেন ক্ষমতা চিরদিন থাকে না, ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়। ক্ষমতার দাপট দেখাবেন না। বসন্তের কোকিলদের এনে দল ভারী করার চেষ্টা করবেন না, আমরা দুঃসময়ের কর্মী চাই, বসন্তের কোকিল চাই না।’

গতকাল সোমবার সকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘স্পষ্টভাবে বলতে চাই, আমাদের পার্টিতে দূষিত রক্ত আর চাই না, দূষিত রক্ত বের করে দিতে হবে। বিশুদ্ধ রক্ত সঞ্চালন করতে হবে। কে কত প্রভাবশালী তার চেয়ে বড় কথা হচ্ছে আমরা চাইব ক্লিন ইমেজের কর্মীদের নেতা বানাতে। খারাপ লোকের কোনো দরকার নেই, খারাপ লোকেরা দলের দুর্নাম ডেকে আনে। দুঃসময় আসলে হাজার পাওয়ারের বাতি জ্বালিয়েও এদের খুঁজে পাওয়া যাবে না। সুতরাং যাদের সাহস আছে, কেয়ার আছে, যাদের ক্লিন ইমেজ আছে, আমি আশা করি আজকের দক্ষিণ মহানগরের সম্মেলন থেকে ক্লিন ইমেজের দ্বার উদ্ঘাটনের সেই সূচনা হবে। যাদের ভালো ইমেজ তাদেরকে দিয়েই কেন্দ্রীয় সম্মেলনে নেতৃত্ব সৃষ্টি করা হবে।’

আওয়ামী লীগ এবং এর সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাবধান করে দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘পরিষ্কার  মেসেজ, প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার এই মেসেজ আমি সম্মেলনের কর্মী ও নেতাদের কাছে দিয়ে গেলাম।’

সরকারের চলমান শুদ্ধি অভিযান বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের মধ্যেও ছড়িয়ে পড়বে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘শুদ্ধি অভিযান শুরু হয়ে গেছে, শেখ হাসিনার অ্যাকশন শুরু হয়ে গেছে। সৎসাহস আছে, বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রমাণ করেছেন, নিজের দল থেকে শুদ্ধি অভিযানের সূচনা করেছেন। কেউ ছাড় পাবে না। শুধু আওয়ামী লীগ নয়, অন্যান্য রাজনৈতিক দল...বড় বড় কথা বলছেন, খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। কারা দুর্নীতি করে আঙুল ফুলে কলাগাছ হয়েছে, খোঁজ নেওয়া হবে। প্রশাসনে কারা দুর্নীতিবাজ, সব সেক্টরে খারাপ লোকদের খুঁজে বের করা হবে।’

১৩ বছর পর গতকাল অনুষ্ঠিত ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা