kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ছাত্রলীগকর্মীর ছুুরিকাঘাতে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আহত

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) সংবাদদাতা   

৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কথা-কাটাকাটির জের ধরে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে এক ছাত্রলীগকর্মীর ছুুরিকাঘাতে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সম্পাদক গুরুতর আহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার উপজেলার চৌমুহনী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত শাহেদুল আলম (৪০) কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য এবং কমলগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাগ্নে। অভিযুক্ত জাকের মিয়া (২২) পৌরসভার নছরতপুর গ্রামের শওকত আলীর ছেলে এবং পৌর ছাত্রলীগের সদস্য। ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক আছেন।

পুলিশ ও শাহেদুলের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার দুপুরে কমলগঞ্জ সরকারি কলেজের দুই ছাত্রলীগকর্মীর সঙ্গে শাহেদুলের কথা-কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে ওই দিন বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার চৌমুহনী এলাকায় শাহেদুলের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে এসে তাঁকে ছুরিকাঘাত করেন জাকের মিয়া। এলাকাবাসী শাহেদুলকে উদ্ধার করে প্রথমে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যায়। অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে রাজধানীর গ্রিন লাইফ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে অস্ত্রোপচারের পর বর্তমানে চিকিৎসকরা তাঁকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছেন।

এদিকে শাহেদুলকে ছুুরিকাঘাতের খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসীর মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে চৌমুহনীতে হামলাকারী জাকের মিয়ার চাচাদের দোকানে ভাঙচুর করা হয়। খবর পেয়ে কমলগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। কমলগঞ্জ থানার ওসি মো. আরিফুর রহমান জানান, পরিস্থিতি এখন শান্ত। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়নি। তবে হামলাকারীকে ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা