kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ জানুয়ারি ২০২০। ৭ মাঘ ১৪২৬। ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগ

সাবেক-বর্তমান নেতাদের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

খুলনা অফিস   

৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



খুলনার কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের বর্তমান ও সাবেক নেতারা পরস্পরের বিরুদ্ধে ঘের দখল ও অর্থ আত্মসাতের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছেন। গত দুই দিন খুলনা প্রেস ক্লাবে পৃথক সংবাদ সম্মেলন করে তাঁরা এই পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেন।

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. মেহেদী হাসান সংগঠনটির বর্তমান সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকু ও সাধারণ সম্পাদক শেখ হাদিউজ্জামান রাসেলের বিরুদ্ধে স্কুল এমপিওভুক্তির নামে ২০ লাখ টাকা আত্মসাৎ, চিংড়িঘের দখল, চাঁদাবাজি, মারপিট ও নির্যাতনের অভিযোগ আনেন।

এর পাল্টা হিসেবে গতকাল শুক্রবার বিকেল ৫টায় এক সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকু ও সাধারণ সম্পাদক শেখ হাদিউজ্জামান রাসেল বলেন, ছাত্রলীগের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করানোর জন্য একটি পক্ষ ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে অসত্য ও বানোয়াট বক্তব্য দিচ্ছে।

তাঁরা ‘প্রকৃত’ ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বলেন, কয়রা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম বাহারুল ইসলাম ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক মো. ইমদাদুল হক টিটু এবং উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকু ও সাধারণ সম্পাদক হাদিউজ্জামান রাসেল যৌথভাবে একটি মাছের ঘের ইজারা নিয়েছেন। গত ১ নভেম্বর থেকে তাঁদের এই ঘেরের দখল পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ঘেরে সমস্যা থাকায় এর দখল পেতে সমস্যা হচ্ছে। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে। এখানে দখলের কোনো প্রশ্ন নেই।

টিংকু ও রাসেল পাল্টা অভিযোগ এনে বলেন,  বরং সাবেক সভাপতি মেহেদী হাসান ওই ঘেরটি দখল পেতে নানা ষড়যন্ত্র করছেন। বর্তমান ছাত্রনেতারা ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে সব ষড়যন্ত্র ও অপ্রচারে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান।

গত ২৪ জুন ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের তৎকালীন সভাপতি মো. রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর যৌথ স্বাক্ষরে তাঁরা কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। সে সময় থেকে তাঁরা কোনো বিতর্কিত কাজের সঙ্গে লিপ্ত হননি বলেও দাবি করেন।

উল্লেখ্য, ২৪ জুন নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠনের পর ছাত্রলীগের দুটি অংশে ওই সময় বিরোধ দেখা দেয়। তখনো পাল্টা সংবাদ সম্মেলনসহ কর্মসূচি প্রদানের ঘটনা ঘটে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা