kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

‘নদীভাঙনে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে কাজ করছে সরকার’

শরীয়তপুর প্রতিনিধি   

৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেছেন, সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টার ফলে গত বর্ষায় নড়িয়ার মানুষ নদীভাঙনের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। এ বছর বর্ষায় যে ২২০ মিটার এলাকা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তা আগামী দুই মাসের মধ্যে ভরাট করে তাদের পুনর্বাসন করা হবে। এ ছাড়া সরকার দেশের নদীভাঙনপ্রবণ এলাকার পুনর্বাসনে এরই মধ্যে ১০০ কোটি টাকা অনুমোদন দিয়েছে।

গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টায় নড়িয়ার মুলফত্গঞ্জ বাজারসংলগ্ন নদীর পাড়ে ঢাকার নড়িয়া উপজেলা পেশাজীবী পরিষদের পক্ষ থেকে নদীভাঙনকবলিত দুর্গতদের দিনব্যাপী বিনা মূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান ক্যাম্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

উপমন্ত্রী বলেন, ২০১৮ সালে ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ পদ্মার ভাঙনে নদীগর্ভে বিলীন হওয়া মুলফত্গঞ্জ হাসপাতালের পুনর্নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। নড়িয়ার মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে আগামী এক বছরের মধ্যে আরো একটি ১০০ শয্যার হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে। এ ছাড়া আগামী এক বছরের মধ্যে নড়িয়ার উন্নয়নের জন্য শতভাগ বিদ্যুতায়ন, রাস্তাঘাটের উন্নয়নসহ একটি আধুনিক মানের স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হবে।

অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরির মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) আব্দুল্লাহ হারুন পাশা, নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়ন্তী রূপা রায়, ঢাকার নড়িয়া উপজেলা পেশাজীবী পরিষদের আহ্বায়ক নুরে হেলাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা