kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বিবির নেতৃত্বে ব্যাংকিং কমিশন ফলদায়ক হবে না : টিআইবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশ ব্যাংকের (বিবি) নেতৃত্বে ব্যাংকিং কমিশন গঠন ফলদায়ক হবে না বলে মনে করছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। সংগঠনটি বলছে, ক্রমবর্ধমান খেলাপি ঋণ ও ব্যাপক অনিয়মে জর্জরিত ব্যাংকিং খাতের সংস্কারের লক্ষ্যে ব্যাংকিং কমিশন করার সিদ্ধান্ত ইতিবাচক। কিন্তু বহুল প্রত্যাশিত কমিশনটি বাংলাদেশ ব্যাংকের অধীনে গঠন করা হলে তা একটি অর্থহীন ও অপরিণামদর্শী সিদ্ধান্ত হবে। এ ক্ষেত্রে স্বার্থের দ্বন্দ্বের কারণে ওই কমিশনের পক্ষে নিরপেক্ষ ও নির্মোহভাবে ব্যাংকিং পরিস্থিতি পর্যালোচনা এবং কার্যকর সুপারিশ প্রণয়ন সম্ভব হবে না। গতকাল বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো টিআইবির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা বলা হয়।

গত ২ নভেম্বর ব্যাংকসহ আর্থিক খাতের অনিয়ম, দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা তদন্ত করতে বিশেষজ্ঞদের নিয়ে ৯ সদস্যের কমিটি গঠনের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এই কমিটি গঠনের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংককে। এ ছাড়া এই কমিটির সুপারিশ বাস্তবায়ন করতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে। তবে আদালত সরাসরি ব্যাংকিং কমিশন গঠনের কথা না বললেও টিআইবির বিজ্ঞপ্তিতে ব্যাংকিং কমিশন গঠনের বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে জানা গেছে যে ব্যাংকিং খাত সংস্কারে বাংলাদেশ ব্যাংকের নেতৃত্বে একটি ব্যাংকিং কমিশন গঠন করতে যাচ্ছে সরকার। এই খাতের সংস্কারে টিআইবিসহ বিভিন্ন মহলের দীর্ঘদিনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে এ সিদ্ধান্ত হওয়া ইতিবাচক। কিন্তু আমরা মনে করি, বাংলাদেশ ব্যাংকের অধীনে এই কমিশন গঠন হবে দায়সারা, অর্থহীন ও অপরিণামদর্শী একটি সিদ্ধান্ত। কেননা ধ্বংসের দ্বারপ্রাপ্তে থাকা ব্যাংকিং খাত নিয়ন্ত্রণে ইতিমধ্যেই বাংলাদেশ ব্যাংক যেমন নিয়ন্ত্রকের কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারেনি; তেমনি অনেক ক্ষেত্রে যারা এই সংকটের জন্য দায়ী তাদের দ্বারাই প্রভাবিত হওয়ার পরিচয় দিয়েছে। তাই বাংলাদেশ ব্যাংকের নেতৃত্বে ব্যাংকিং কমিশন গঠন করা হলে তা স্বার্থের সংঘাত তৈরি করবে এবং কমিশন গঠনের মূল উদ্দেশ্যকে ব্যাহত করবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা