kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

শিশু নির্যাতন

স্বপন মিয়ার ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে শিশু নির্যাতনের মাধ্যমে অভিনব কায়দায় ব্ল্যাকমেইলিংয়ের ফাঁদ এঁটে টাকা আদায়কারী চাচা স্বপন মিয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাহিনুর আলমের আদালতে সে এই স্বীকারোক্তি দেয়। ছয় বছর বয়সী নিজ ভাতিজা জিসানকে নগ্ন করে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন এবং সেই ঘটনা ভিডিও করে তার মাকে প্রেরণ করে স্বপন। চাহিদামতো টাকা না পাঠালে শিশুটিকে আরো নির্যাতনের হুমকি দেয়। এতে সৌদি আরবে গৃহকর্মী হিসেবে কর্মরত শিশুটির মা সুমনা বেগম গত শুক্রবার ছুটে আসেন দেশে। জিসানকে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হলে গত বুধবার ভোরে নবীগঞ্জ থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার হয় শিশু নির্যাতনকারী ও ব্ল্যাকমেইলার স্বপন।

আদালত সূত্র জানায়, প্রায় ঘণ্টাব্যাপী ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয় স্বপন মিয়া। এ সময় সে আদালতকে বলে যে টাকার জন্যই সে এই কাজ করেছে। এটি যে গুরুতর অপরাধ সেটিও সে স্বীকার করেছে। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। তার বিরুদ্ধে জিসানের মা সুমনা বেগম বাদী হয়ে শিশু আইনের ৭০ ধারা এবং দণ্ডবিধির ৩৮৭ ধারায় নবীগঞ্জ থানায় মামলা করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা