kalerkantho

শনিবার । ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৬ রবিউস সানি               

ফেনী নদীর পানি প্রত্যাহারে ভারতে এমওইউ অনুমোদন

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফেনী নদী থেকে পানি প্রত্যাহার বিষয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) অনুমোদন করেছে ভারতের মন্ত্রিসভা। গত বুধবার নয়াদিল্লিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে ওই এমওইউ অনুমোদন লাভ করে।

গত ৫ অক্টোবর নয়াদিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে দুই দেশের বৈঠক শেষে ওই এমওইউ স্বাক্ষরিত হয়েছিল। এমওইউ অনুযায়ী, বাংলাদেশ ও ভারতের অভিন্ন নদী ফেনী থেকে ত্রিপুরার সাব্রুম শহরে খাবার পানি সরবরাহের জন্য ভারত ১ দশমিক ৮২ কিউসেক পানি তুলবে। 

ভারতের প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো গত বুধবার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলে, এখন পর্যন্ত ফেনী নদীর পানিবণ্টনে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে কোনো চুক্তি হয়নি। সাব্রুম শহরে বর্তমানে খাবার পানির যে সরবরাহ, তা প্রয়োজনের তুলনায় কম। ওই অঞ্চলে ভূগর্ভস্থ পানিতে উচ্চ মাত্রার ‘আয়রনের’ (লৌহজাত পদার্থ) উপস্থিতি রয়েছে। স্বাক্ষরিত এমওইউ বাস্তবায়নের ফলে সাব্রুমের সাত হাজারেরও বেশি বাসিন্দা উপকৃত হবে।

বাংলাদেশের পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, ১ দশমিক ৮২ কিউসেক বা সাড়ে ৫১ লিটার পানি তোলার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু মানবিক দিক ও প্রতিবেশী হিসেবে বিবেচনা করে সম্মতি দিয়েছেন।  এই সম্মতিও দেওয়া হয়েছে শর্ত সাপেক্ষে। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত মাসে তাঁর ভারত সফরে তিস্তাসহ অভিন্ন নদ-নদীগুলোর পানিবণ্টন চুক্তির বিষয়ে আলোচনা করেছেন। দুই দেশ সম্মত হলে আগামী কয়েক মাসের মধ্যে ফেনী, মনু, মুহুরী, খোয়াই, গোমতী, ধরলা ও দুধকুমার নদের পানিবণ্টন চুক্তি হতে পারে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা