kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ নভেম্বর ২০১৯। ২৭ কার্তিক ১৪২৬। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধান বিচারপতি বললেন

বাংলাদেশ কেন মামলাজট কমাতে পারবে না?

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধান বিচারপতি জাকি বিন আজমী বলেছেন, মালয়েশিয়া মামলার জট কমাতে পারলে বাংলাদেশ কেন পারবে না? মামলার জট কমাতে বিচারক ও আইনজীবীদের উদ্যোগ নিতে হবে।

গতকাল মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবন মিলনায়তনে বাংলাদেশের সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীদের সঙ্গে মালয়েশিয়ার বিচারব্যবস্থা নিয়ে অভিজ্ঞতা বিনিময় শীর্ষক এক সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধান বিচারপতি এসব কথা বলেন। বর্তমানে তিনি দুবাই আন্তর্জাতিক আর্থিক আদালতের প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট এ এম আমিনউদ্দিনের সভাপতিত্বে ওই সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী। দেশের প্রথিতযশা আইনজীবী ড. কামাল হোসেন সভায় আন্তর্জাতিক সালিসি মামলায় তাঁর অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন।

জাকি বিন আজমী আরো বলেন, একটি মামলার বিচার নিষ্পত্তি করার পরই আরেকটি মামলা ধরতে হবে। মামলায় শুনানি মুলতবি করা যাবে না। এই পদ্ধতি অবলম্বন করে মালয়েশিয়ায় মামলার জট কমেছে। মালয়েশিয়া যে পদ্ধতি অবলম্বন করেছে বাংলাদেশেও সেই পদ্ধতি নিলে মামলার জট কমবে।

জাকি বিন আজমী বলেন, মালয়েশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনার মামলায় মধ্যস্থতা পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়। এই পদ্ধতি গ্রহণের আগে সেখানে ভিকটিমের সম্মতি নেওয়া হয়। এ কারণে তিন থেকে ছয় মাসের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তি হয়। বাংলাদেশেও এটা চালু করা গেলে আশা করি বাংলাদেশ উপকৃত হবে।

দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী বলেন, ‘বিচারপ্রার্থীদের ন্যায়বিচার পাইয়ে দিতে সহযোগিতার মানসিকতা দেখাতে হবে আইনজীবীদের।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা