kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ নভেম্বর ২০১৯। ২৭ কার্তিক ১৪২৬। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

এসআইয়ের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৬ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানার এসআই আবুল কালাম আজাদের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেছেন সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের এক নারী নকলকারক। গতকাল সোমবার উপজেলার বৈদ্যেরবাজার সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে পুুলিশসুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিলের প্রস্তুতি চলছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বৈদ্যেরবাজার সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের পিয়ন জামানের বাবা আলতাফ হোসেন সম্প্রতি ভরণ-পোষণের দাবিতে ছেলের বিরুদ্ধে সোনারগাঁ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এর তদন্তভার পান এসআই আবুল কালাম আজাদ। গত সোমবার সকাল ১১টায় সাব-রেজিস্ট্রি অফিস থেকে জামানকে গ্রেপ্তার করেন পুলিশ কর্মকর্তা আজাদ। গ্রেপ্তারের কারণ জানতে চাইলে জামানকে কিলঘুষি ও লাথি মারতে মারতে দোতলা থেকে নামানো হচ্ছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। এ সময় জামানের স্ত্রী একই রেজিস্ট্রি অফিসের নকলকারক এগিয়ে আসেন। স্বামীকে গ্রেপ্তারের কারণ জানতে চাইলে তাঁকে গালাগাল করে গ্রেপ্তার করতে চান এসআই আজাদ। এ সময় ওই নারী দৌড়ে অফিস কক্ষের টয়লেটে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেন। এ সময় আজাদ টয়লেটের দরজায় বারবার টোকা দিচ্ছিলেন। একপর্যায়ে ৬৭ জন নারী নকলকারক এগিয়ে এলে আজাদ ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। পরে জামানকে সিএনজি অটোরিকশায় তুলে মারতে মারতে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

ভুক্তভোগী জামান বলেন, ‘আমাকে কেন গ্রেপ্তার করা হচ্ছে জানতে চাওয়ায় আমার ওপর রাস্তায়, থানায় ও সিএনজির ভেতরে অমানসিক নির্যাতন চালানো হয়েছে। আমার স্ত্রীকে শত শত মানুষের সামনে অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করা হয়। আমার হাতে হাতকড়া দেখে আমার বাবা অজ্ঞান হয়ে গেছেন।’

এসআই আজাদ বলেন, ভরণ-পোষণের জন্য জামানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন তাঁর বাবা আলতাফ। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জামানকে থানায় আনা হয়। পরে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা