kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সন্ধান মিলেছে নিখোঁজ বাউল রোজারিওর

নাটোর ও চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি   

২০ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সন্ধান মিলেছে নিখোঁজ বাউল রোজারিওর

পাবনার চাটমোহর থেকে নিখোঁজ হওয়া বাউল সুভাষ রোজারিওর (৪০) সন্ধান মিলেছে। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় কুষ্টিয়ার হরিনারায়ণপুর শ্মশানে তাঁর সন্ধান পাওয়া যায়। পুলিশ জানিয়েছে, সুভাষ রোজারিও সন্ন্যাসী জীবনযাপনের অংশ হিসেবে আত্মগোপনে ছিলেন। তাঁকে কেউ অপহরণ করেনি।

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল চামটা গ্রামের বোর্নি সম্প্রদায়ভুক্ত লুকাস রোজারিওর ছেলে সুভাষ বাউলশিল্পী হিসেবে পরিচিত। অনেকে তাঁকে ‘খ্যাপা বাউল’ হিসেবে ডাকেন। গত ২৬ সেপ্টেম্বর রাত ১১টার দিকে বাড়ি থেকে গাজীপুর যাওয়ার উদ্দেশে চাটমোহর রেলস্টেশনে যায় সুভাষ। এরপর থেকে তাঁর কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। এ ব্যাপারে পরিবারের পক্ষ থেকে চাটমোহর থানায় জিডিও করা হয়। মামলা হয় নাটোর বড়াইগ্রাম থানায়।

গতকাল সকালে নাটোর পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, সুভাষ রোজারিও গত ২৬ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ১০টায় বড়াইগ্রামের চামটা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে সিএনজিযোগে চাটমোহর রেলস্টেশনে যান। সেই পর্যন্ত তাঁর সঙ্গে স্বজনদের যোগাযোগ ছিল। এরপর থেকে তাঁর সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না। একপর্যায়ে কুষ্টিয়ার হরিনারায়ণপুর শ্মশানে তাঁর অবস্থান নিশ্চিত করে পুলিশ। এরপর গত শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সেখান থেকে পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে নাটোরে নিয়ে আসে। সুভাষ রোজারিওর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ সুপার জানান, জাগতিক সবকিছু পরিত্যাগ করে যোগ সাধনার জন্য তিনি নিভৃত স্থানে অবস্থান করছিলেন। তাঁকে কেউ অপহরণ করেনি।

তবে নিখোঁজের পর সুভাষের ভাই লুইস রোজারিও দাবি করেন, অপরিচিত এক মোবাইল ফোন থেকে জানানো হয় যে সুভাষকে অপহরণ করা হয়েছে। তাঁর মুক্তির জন্য ৯০ হাজার টাকাও দাবি করা হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা