kalerkantho

বুধবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৩ রবিউস সানি     

একসঙ্গে ৮ রানি

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



একসঙ্গে ৮ রানি

হবিগঞ্জের বগলাবাজার এলাকায় ছাদবাগানে ফুটে থাকা নাইটকুইন। ছবি : কালের কণ্ঠ

হবিগঞ্জ শহরের বগলাবাজার এলাকায় প্রমথ সরকার নামের এক ব্যক্তির বাসার ছাদবাগানে এক সঙ্গে ফুঠেছে রাতের আট রানি। গত বৃহস্পতিবার রাতে ফোটে এই নাইট কুইনগুলো। এর আগে এক রাতে সর্বোচ্চ ১৭টি নাইট কুইন ফুটেছিল বলেও তিনি জানান।

বিরল ক্যাকটাস জাতীয় নাইট কুইনের আদি নিবাস আমেরিকার দক্ষিণাঞ্চল এবং মেক্সিকোতে। বাংলাদেশে খুব বেশি দেখা মেলে না এই ফুলের।

বৃন্দাবন সরকারি কলেজের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. সুভাষ চন্দ্র দেব জানান, অনেকেই শখ করে বাসায় টবে নাইট কুইন লাগায়। নাইট কুইনের বৈজ্ঞানিক নাম ঢ়বহরড়পবত্বঁং মত্বমমরর. প্রচলিত ধারণায় এটাকে সৌভাগ্যের প্রতীক মনে করা হয়। নাইট কুইনের সৌন্দর্যে সবাই এতটাই মুগ্ধ হয় যে, তার সৌন্দর্য নিয়ে কেউ দ্বিমত পোষণ করে না। এটি অনেকটা পদ্ম ফুলের মতো দেখতে, রং সাদা। মৃদু সুগন্ধ আছে।

ড. সুভাষ চন্দ্র আরো জানান, নাইট কুইন পাতা থেকে জন্ম নেয়। গাছের এক টুকরো পাতা ছিঁড়ে মাটিতে ফেলে রাখলে কয়েক দিনের মধ্যে ছেঁড়া পাতার চারদিকে চারা গজিয়ে যায়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা