kalerkantho

বুধবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৩ রবিউস সানি     

আইসিসিবিতে বিল্ড বাংলাদেশ এক্সপো

সাড়া জাগিয়ে শেষ হচ্ছে আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাড়া জাগিয়ে শেষ হচ্ছে আজ

ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় চলছে সেমস গ্লোবাল আয়োজিত বিল্ড বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল এক্সপো। গতকাল মেলার দ্বিতীয় দিনেও ছিল দর্শনার্থীদের ভিড়। ছবি : কালের কণ্ঠ

সদ্যই লেখাপড়া শেষ করে বন্ধুদের নিয়ে ব্যবসা শুরু করা তরুণ, সারা জীবনের সঞ্চয় দিয়ে নির্মিতব্য বাড়ির মালিক, অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা, দীর্ঘদিনের কঠোর শ্রমে দাঁড় করানো প্রতিষ্ঠানের মালিক, চাকরির আশায় বসে না থেকে গ্রামে খামার স্থাপন করে সাফল্য পাওয়া যুবক—সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সম্মিলন ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি)। সেমস গ্লোবাল আয়োজিত ‘২৬তম বিল্ড বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল এক্সপো ২০১৯’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী ঘিরে তাদের এই আগমন।

অবকাঠামো সামগ্রীর এই তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীর দ্বিতীয় দিনে গতকাল শুক্রবার ছিল ক্রেতা-দর্শনার্থীর উপচে পড়া ভিড়। সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় সকাল থেকেই আইসিসিবিতে লোকসমাগম ছিল প্রথম দিনের চেয়ে বেশি। তবে দুপুরের পর থেকে ভিড় বাড়তে থাকে।

প্রদর্শনীতে অংশ নেওয়া দেশি-বিদেশি কম্পানিগুলোর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বড় বড় ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি মাঝারি এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরাও আসছেন। ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য বিভিন্ন অবকাঠামো সামগ্রী ও প্রযুক্তির খোঁজখবর নিতে আসছে সাধারণ দর্শনার্থীরাও।

আলফা ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. ইউসুফ বলেন, ‘গ্রাহকদের চাহিদার সঙ্গে এই ওয়াটার পাম্পগুলো ম্যাচ করছে কি না, কোন পাম্পের সক্ষমতা কী রকম—এমন নানা প্রশ্ন আগতদের। তাঁরা তথ্য জানছেন এবং বাজারে থাকা লোকাল ব্র্যান্ডের তথ্যের সঙ্গে মিলিয়ে দেখে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন।’

কমপ্যাক্ট পাওয়ার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের স্বত্বাধিকারী মির্জা আজিজুল হাকিম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘হাইভোল্টেজ প্রডাক্ট, যেমন—সিটিবিটি, লাইটনিংয়ের স্টোর, ড্রপ আইট ফিউজ, ফিউজ নিয়ে মানুষজন বেশি জানতে চাচ্ছে। এই স্টলে যে গ্রাহকরা আসছেন তাঁদের অর্ধেকেরও বেশি যুবক।’

জানা যায়, আন্তর্জাতিক এই প্রদর্শনীতে অবকাঠামো উন্নয়ন সংশ্লিষ্ট সর্বাধুনিক উদ্ভাবনী ধারণা, সরঞ্জামাদি, প্রযুক্তি ও পরিষেবার পসরা সাজিয়ে বসেছেন বাংলাদেশসহ ভারত, চীন, সুইডেন, জার্মানি, ইতালি, যুক্তরাষ্ট্র, তুরস্কসহ ১৪টির বেশি দেশের ২৬৭টি কম্পানি। তিন শতাধিক স্টলে শোভা পাচ্ছে তাদের পণ্য।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা