kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৭ রবিউস সানি ১৪৪১     

রিজভীর অভিযোগ

ছাত্ররাজনীতি বন্ধের পাঁয়তারা করছে সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছাত্ররাজনীতি বন্ধের পাঁয়তারা করছে সরকার

সরকার ছাত্ররাজনীতি বন্ধের পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী। তিনি বলেছেন, ছাত্রলীগের অপকর্ম দিয়ে বর্তমানে ছাত্ররাজনীতি বা সাংগঠনিক রাজনীতি বন্ধের উদ্যোগ চলছে। সরকার এটি করেছে পরিকল্পিতভাবে।

গতকাল সোমবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ অভিযোগ করেন।

রিজভী বলেন, স্বাধীনতার পরপরই ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও শহীদ মিনারে ছাত্রী লাঞ্ছনার মধ্য দিয়ে ছাত্রলীগ তাদের যাত্রা শুরু করে। তাদের উত্তরসূরিরাই বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ে হলে হলে প্রচলিত বিধিবিধানকে তোয়াক্কা না করে নিষ্ঠুর ও সর্বনাশা নির্যাতন ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে। আর এটা সম্ভব হয়েছে সরকারের ছত্রচ্ছায়ায়। রিজভী বলেন, ছাত্রলীগের কদাচারের জন্য সমগ্র ছাত্রসমাজ বা ছাত্ররাজনীতি দায়ী হতে পারে না। বহু মুক্তি আন্দোলন-সংগ্রামের পথিকৃৎ ছাত্ররাজনীতিকে ছাত্রসমাজের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো ঠিক নয়। ছাত্রসমাজ আলোকদীপ্ত চোখে রাষ্ট্র ও সমাজে অনাচারগুলো চিহ্নিত করে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায়, নির্যাতিত জনগণের ভ্যানগার্ড হিসেবে রাজপথে দৃপ্ত পায়ে এগিয়ে গেছে।

রিজভী আরো বলেন, চট্টগ্রামের সাতকানিয়া ও ঝিনাইদহের মহেষপুর উপজেলার নির্বাচনে প্রত্যেকটি কেন্দ্র থেকে বিএনপি প্রার্থীর এজেন্টদের মারধর করে বের করে দেওয়া হয়েছে এবং রাস্তার মোড়ে মোড়ে লাঠিসোঁটা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে আওয়ামী ক্যাডাররা। পুলিশও ভোটারদের বের করে দিচ্ছে। স্থানীয় প্রশাসনকে অবহিত করলে তারা ‘দেখছি বলে’ নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা