kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

রিজভী বললেন

আন্দোলন হুমকি দিয়ে দমন করা যাবে না

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী বলেছেন, ‘দেশের প্রতিটি মানুষ অসম এবং সার্বভৌমত্ব বিপন্নকারী চুক্তির বাতিল চায়। দেশের জনগণ গত এক দশকে ভারতের সঙ্গে করা সব চুক্তির বিস্তারিত জানতে চায়। এই দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, হুমকি-ধমকি দিয়ে আন্দোলন দমন করা যাবে না। এই আন্দোলন বাংলাদেশের মানুষের গোলামির জিঞ্জির ছিঁড়তে স্বাধীনতা রক্ষার আন্দোলন।’

গতকাল রবিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ কথা বলেন।

রিজভী বলেন, দেশবিরোধী চুক্তির সঙ্গে দলের ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদের গ্রেপ্তারের যোগসূত্র রয়েছে। কারণ হাফিজ পানিমন্ত্রী ছিলেন। তিনি পানিচুক্তি সংক্রান্ত নানা দিক তুলে ধরতে পারতেন। এ কারণেই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এটি মানুষের চোখকে অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেওয়ার অপকৌশল মাত্র।

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার তানভীর আরাফাত শহীদ আবরারের পরিবারকে নানা কায়দায় জিম্মি করে রেখেছেন বলে তাঁর অপসারণও দাবি করেন রিজভী। তিনি বলেন, ‘আবরার হত্যাকাণ্ড নিয়ে কেউ যাতে টুঁ শব্দ করতে না পারে সে জন্য এসপি হানিফ সাহেবের লাঠিয়াল বাহিনীতে পরিণত হয়েছেন। দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান ও নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিমউদ্দিন আলম শহীদ আবরারের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গেলেও (গতকাল) তা দেয়নি পুলিশ। এ মুহূর্তেই কুষ্টিয়ার এসপির অপসারণ দাবি করছি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা