kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ জানুয়ারি ২০২০। ৯ মাঘ ১৪২৬। ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১          

গঙ্গা-যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসব শুরু কাল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



গঙ্গা-যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসব শুরু কাল

ভারতের চারটি এবং ঢাকা ও ঢাকার বাইরের ৩৬টি নাট্যদলসহ আবৃত্তি, সংগীত, নৃত্য, পথনাটকের মোট ১২১টি সংগঠন আগামী ১০ দিন মাতিয়ে রাখবে দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গন। শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তন, পরীক্ষণ থিয়েটার হল, স্টুডিও থিয়েটার হল, সংগীত-আবৃত্তি ও নৃত্য মিলনায়তন এবং বাংলাদেশ মহিলা সমিতির ড. নীলিমা ইব্রাহিম মিলনায়তনে তারা পরিবেশন করবে মঞ্চনাটক, পথনাটক, আবৃত্তি, সংগীত, নৃত্য ও মূকাভিনয়।

সাংস্কৃতিক আয়োজনের এ মহাযজ্ঞ শুরু হচ্ছে আগামীকাল শুক্রবার। বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী ও সাংস্কৃতিক বন্ধন আরো দৃঢ় করার প্রত্যয় নিয়ে শুরু হতে যাওয়া এ গঙ্গা-যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসব চলবে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত। উন্মুক্ত মঞ্চের সাংস্কৃতিক পর্ব প্রতিদিন ৪টা ৩০ মিনিট থেকে ৬টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত এবং মঞ্চনাটক প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হবে।

আগামীকাল সন্ধ্যা ৬টায় জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে ১০ দিনব্যাপী অষ্টম ‘গঙ্গা-যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসব-২০১৯’ উদ্বোধন করবেন বিশিষ্ট নাট্যজন আসাদুজ্জামান নূর এমপি ও মেঘনাদ ভট্টাচার্য। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়, শিল্পকলা একাডেমি ও ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় এ উৎসব উদ্যাপিত হবে।

গতকাল বুধবার শিল্পকলা একাডেমির সেমিনার কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ আয়োজনের বিস্তারিত জানানো হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পর্ষদের আহ্বায়ক গোলাম কুদ্দুছ, গণসংগীতশিল্পী ফকির আলমগীর, বাচিকশিল্পী আহকাম উল্লাহ, নাট্যজন মিজানুর রহমান ও আহমদ গিয়াস। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আকতারুজ্জামান। সঞ্চালনা করেন নাট্যজন মীর জাহিদ হাসান।

চারুকলায় যৌথ চিত্রপ্রদর্শনী শুরু : বাংলাদেশ ও ভারতের ২০ জন শিল্পীর যৌথ চিত্রকর্ম প্রদর্শনী ‘কোলাজ’ শুরু হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের জয়নুল গ্যালারিতে। গতকাল বিকেলে প্রদর্শনীর উদ্বোধনীতে উপস্থিত ছিলেন চিত্রশিল্পী সমরজিৎ রায় চৌধুরী, চিত্রশিল্পী হামিদুজ্জামান খান, চারুকলা অনুষদের ডিন নিসার হোসেন, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুজাহিদুর রহমান হেলো সরকার ও শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের সাধারণ সম্পাদক লায়ন মো. মজিবুর রহমান হাওলাদার।

প্রদর্শনীতে অংশ নেওয়া শিল্পীরা হলেন ভারত থেকে রূপালী রায়, প্রভাত চন্দ্র সেন, অঞ্জন সেনগুপ্ত, সন্ত সরকার, সোমা মাঝি, তন্ময় বিশ্বাস, প্রত্যুষা মুখার্জি, সন্দীপ ভট্টাচার্য, পপী ব্যানার্জি ও উমা বর্ধন। দেশের শিল্পীরা হলেন আফরোজা খন্দকার, লায়লা আঞ্জুমান আরা, কমর মুস্তারী শাপলা, সুজন দে, প্রহ্লাদ কর্মকার, ঊর্মিলা দাস, আহসান আহমেদ, শর্মিলা কাদের, রেজওয়ান পিলো, শর্বরী রায় চৌধুরী ও জি এম জোয়ার্দার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা