kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ জানুয়ারি ২০২০। ৯ মাঘ ১৪২৬। ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১          

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ও শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুট

পারের অপেক্ষায় শত শত যানবাহন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১০ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পদ্মায় প্রবল স্রোতের কারণে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচলে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। স্রোত ও নদীভাঙনের কারণে দৌলতদিয়ায় একটিমাত্র ঘাট চালু থাকায় সীমিত আকারে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। আট শতাধিক গাড়ি পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। অপরদিকে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী রুটেও ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এ ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় আছে পাঁচ শতাধিক বাহন।

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, গতকাল পাটুরিয়া ঘাট থেকে নবগ্রাম পর্যন্ত তিন কিলোমিটার এবং ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের উথুলী সংয়োগ মোড় থেকে আরিচা ঘাট পর্যন্ত পাঁচ কিলোমিটার দীর্ঘ যানজট দেখা দেয়। এ সময় বাস-পণ্যবাহী ট্রাক মিলে আট শতাধিক যানবাহন পারের অপেক্ষায় ছিল। স্রোতের কারণে লঞ্চ চলাচল ছয় দিন যাবৎ বন্ধ রয়েছে। এক থেকে দুই দিন অপেক্ষা করে যাত্রীদের পার হতে হচ্ছে। এতে নারী ও শিশুদের নাকাল অবস্থার মধ্যে পড়তে হচ্ছে।

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী রুটে ১৬টি ফেরির মধ্যে মাত্র পাঁচটি ফেরি চলছে। স্রোতের বিপরীতে ঝুঁকি নিয়ে ফেরি চলতে হচ্ছে।

বিআইডাব্লিউটিসি পাটুরিয়া ঘাটের এজিএম মো. জিল্লুর রহমান জানান, নদীতে প্রবল স্রোতের কারণে বহরে থাকা সব ফেরি চালানো সম্ভব হচ্ছে না। ছোট-বড় ১৬টি ফেরির মধ্যে ছয়টি ফেরি দিয়ে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। স্রোত ও নদীভাঙনের কারণে দৌলতদিয়ায় মাত্র একটি ঘাট বাদে সবগুলো ঘাট বন্ধ রয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা