kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ভারতে গ্যাস রপ্তানি নয়, ‘রি-এক্সপোর্ট’ করা হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সিলেট অফিস   

৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বাংলাদেশের গ্যাস ভারতকে দেওয়া হচ্ছে—এটা ভুল তথ্য মন্তব্য করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ‘দেশের প্রাকৃতিক গ্যাস রপ্তানি নয়, বিদেশ থেকে এলএনজি এনে প্রক্রিয়াজাত করে তা ভারতে রপ্তানি করা হবে। আমরা রি-এক্সপোর্ট করব।’

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সিলেট বিভাগীয় স্টেডিয়ামের আউটার স্টেডিয়ামের নির্মাণকাজ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘একটা ভুল ধারণা তৈরি হচ্ছে যে ভারতকে বাংলাদেশ গ্যাস দিয়ে দিচ্ছে। এখানে তথ্যটা ভুল। আমরা কোত্থেকে বিক্রি করব গ্যাস? মূলত আমরা বিদেশ থেকে গ্যাস এনে এটাকে এলএনজি প্রক্রিয়াজাত করে সিলিন্ডারে ঢুকাব। অর্থাৎ বিদেশ থেকে গ্যাস এনে এটাকে সিলিন্ডারাইজেশন করে আমরা ভারতে দেব। এতে আমাদের মার্কেট বড় হবে। আমাদের দেশের উন্নতি হবে। আমাদের লাভ, আমরা রি-এক্সপোর্ট করতেছি। এটা দুনিয়ার সব দেশেই হয়।’

ভারতের সঙ্গে পানি বিনিময় নিয়ে কিছু মানুষ বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বলে অভিযোগ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, মানবিক বিষয়ের কথা মাথায় রেখে ফেনী নদীর কিছু পানযোগ্য পানি ভারতকে দেওয়া হবে। তিনি বলেন, ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রেখেই বিভিন্ন সময় আন্ত চুক্তি হয়ে থাকে। তারই অংশ হিসেবে আরো নানা চুক্তি হয়েছে, যা প্রধানমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত তুলে ধরবেন।

এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদরউদ্দিন আহমদ কামরান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল প্রমুখ।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কার্যালয় উদ্বোধন : এদিকে বিকেলে নগরের জিন্দাবাজার এলাকায় নিজের একটি আঞ্চলিক কার্যালয় উদ্বোধন করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তাঁর বড় ভাই সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতকে নিয়ে তিনি নিজের কার্যালয় উদ্বোধন করেন।

কার্যালয় উদ্বোধনকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এলাকার সব মানুষের সঙ্গে আমার যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে কাজ করবে এই কার্যালয়। বিভিন্ন ধরনের সেবা এলাকার মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে কাজ করবে এই কার্যালয়। মানুষ নিজের অভিযোগ-অনুযোগ সব এই কার্যালয়ের মাধ্যমে আমাকে জানাতে পারবেন।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আজ থেকে আমার কার্যালয় সবার জন্য খোলা। প্রতিদিন এ কার্যালয়ে যে কেউ আসতে পারবেন। স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাদের কার্যালয়ে নিয়মিত বসার আহ্বান জানান সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য ড. মোমেন।

এ সময় সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, সহসভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা