kalerkantho

সোমবার । ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১১ রবিউস সানি ১৪৪১     

গাজীপুরে অপহৃত দুই কিশোরসহ কলেজছাত্রী উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অপহরণের দুই মাস পর সুমন (১৫) ও জিহাদ হাসান (১৫) নামে দুই কিশোরকে গাজীপুর থেকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১। গত সোমবার রাতে শহরের ভাওয়াল রাজবাড়ী এলাকার একটি বাড়ি থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। তবে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি র‌্যাব। এদিকে ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থেকে অপহৃত এক কলেজছাত্রীকে গাজীপুরের সফিপুর বাজারের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব সূত্র জানায়, গত ১ আগস্ট সকাল সাড়ে ১১টার দিকে সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার দেবীপুর গ্রাম থেকে অপহরণ হয় সুমন ও জিহাদ। এর পরপরই তাদের মুক্তির জন্য মোবাইল ফোনে পরিবারের কাছে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করে অপহরণকারীরা। অনেক খোঁজাখুঁজি করে ওই দুই কিশোরকে না পেয়ে গত ১৯ সেপ্টেম্বর তাড়াশ থানায় অপহরণ মামলা করে স্বজনরা। এর পর গত ৬ অক্টোবর জিহাদের বাবা রশিদ মিয়া র‌্যাবের কাছে এসে ছেলেকে উদ্ধারে সহায়তা চান। পরে প্রযুক্তির মাধ্যমে র‌্যাব-১-এর কম্পানি কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে ওই দুই কিশোরকে উদ্ধার করা হয়। অভিযানের সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে অপহরণকারীরা পালিয়ে যায়। ফলে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

এদিকে র‌্যাব-১-এর কম্পানি কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, কলেজ থেকে বাসায় ফেরার পথে গত ২৯ সেপ্টেম্বর চার-পাঁচ নাম না জানা যুবক ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থেকে ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে। এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা পরদিন আলফাডাঙ্গা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। গত ১ অক্টোবর বিকেলে অপহরণকারীরা মোবাইল ফোনে ছাত্রীর পরিবারের কাছে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। পরে গত সোমবার মেয়েটির বাবার কাছ থেকে অভিযোগ পায় র‌্যাব। এ সময় র‌্যাব প্রযুক্তি ব্যবহার করে গাজীপুরের চন্দ্রা এলাকার একটি বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে অপহরণকারীরা ছাত্রীকে নিয়ে মাইক্রোবাসে করে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় র‌্যাব সদস্যরা অপহরণকারীদের ধাওয়া করে। এরই একপর্যায়ে অপহরণকারীরা ওই ছাত্রীকে সফিপুর এলাকায় গাড়ি থেকে নামিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা