kalerkantho

সোমবার । ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১১ রবিউস সানি ১৪৪১     

জুরাইনে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর জুরাইনে একটি বাসার ছাদ থেকে পড়ে রহিম বাদশা হৃদয় (২৩) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গত সোমবার রাতে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। তবে নিহতের পরিবারের দাবি, তাদের বাসার কয়েকটি বাড়ির পর একটি চারতলা ভবনের ছাদে রহিমকে ডেকে নিয়ে মারধর করে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

রহিম তার মামার মুদি দোকানে কাজ করতেন। পরিবারের সঙ্গে তিনি জুরাইন আলম মার্কেট এলাকার একটি বাসায় থাকতেন। দুই ভাই-বোনের মধ্যে তিনি বড়। দুই বছর আগে তিনি বিয়ে করেন।

পুলিশ জানায়, আলম মার্কেটের পাশে একটি বাসায় থাকলেও পাশের জুরাইন ১৮২২ নম্বর বাসার চারতলার ছাদ থেকে পড়ে রহিমের মৃত্যু হয়েছে। রহিমের মুখমণ্ডলের বিভিন্ন স্থানে থেঁতলানো জখম রয়েছে। এ ছাড়া তাঁর হাতের আঙুলে জখমের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

নিহত হৃদয়ের খালা সালমা বেগম বলেন, ‘রহিমরে কারা জানি ছাদ থেইকা ফেইলা দেয়। সে কিছুতেই নিজ ইচ্ছায় মরতে পারে না। কেউ তারে ফালাইয়া মারছে। কিন্তু কারা ফালাইছে অন্তরি (এখনো) পাই নাই। পুলিশরা তদন্ত করতাছে। মামলা করা হইব।’

কদমতলী থানার ওসি মো. জামাল উদ্দিন মীর বলেন, ‘ওই বাসায় রহিমসহ কয়েকজন নেশা করছিলেন বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি। পরে কোনো কারণে দুজন ওই বাসার ছাদ থেকে নিচে লাফ দেন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় আশপাশের লোকজন রহিমকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে তাঁকে গ্রিন লাইফ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানেই রহিম মারা যান। এ ছাড়া আহত অপরজনের অবস্থা কী সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা