kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

চিকিৎসা-আইনি পরামর্শের জন্য ঢাকায় মিন্নি

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চিকিৎসা-আইনি পরামর্শের জন্য ঢাকায় মিন্নি

রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা মামলায় প্রধান সাক্ষী থেকে আসামি করা তাঁর স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি ঢাকার উদ্দেশে বরগুনা ছেড়েছেন। গতকাল শনিবার বিকেলে বাবার সঙ্গে ঢাকাগামী একটি লঞ্চে করে তিনি বরগুনা ছাড়েন। মিন্নির পরিবার জানিয়েছে, চিকিৎসা ও আইনি পরামর্শ নেওয়ার জন্য মিন্নি ঢাকায় গেছেন।

মিন্নির সঙ্গে তাঁর বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর ছাড়াও রয়েছেন নানা জাকির সিকদারসহ আরো এক আত্মীয়।

ঢাকাগামী এমভি শাহরুখ লঞ্চে করে ঢাকায় রওনা হওয়ার আগে বরগুনায় কর্মরত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা হয় মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরের। তিনি জানান, রিমান্ডে নিয়ে তাঁর মেয়েকে পুলিশ নির্যাতন করেছে। মিন্নির দুই হাঁটুতে এখনো ব্যথা রয়েছে। তাঁর মানসিক অবস্থা খুবই খারাপ। এ ছাড়া তাঁর শরীরে নানা ধরনের রোগের উপসর্গ দেখা দিয়েছে। তাঁকে দ্রুত উন্নত চিকিৎসা দেওয়া জরুরি। তিনি আরো জানান, রিফাত হত্যাকাণ্ডে জড়িয়ে আসামি হিসেবে পুলিশ অভিযোগপত্র দেওয়ায় মিন্নি দুশ্চিন্তা ও হতাশায় ভুগছেন। তিনি বলতে গেলে এখন মানসিক রোগী। তাই তাঁকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেওয়া হচ্ছে। বাসা থেকে লঞ্চঘাট পর্যন্ত আসার সময় পুলিশের গোয়েন্দা শাখার দুজন কর্মকর্তা তাঁদের সঙ্গে ছিলেন বলে জানান মিন্নির বাবা।

মোজাম্মেল জানান, মিন্নির জামিনের জন্য বিনা পারিশ্রমিকে যাঁরা উচ্চ আদালতে আইনি লড়াই করেছেন সেই আইনজীবীদের সঙ্গে দেখা করে তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাবেন তাঁরা। আজ রবিবার মিন্নি তাঁর প্রধান আইনজীবী জেড আই খান পান্নার সুপ্রিম কোর্টের চেম্বারে তাঁর পক্ষের সব আইনজীবীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। অভিযোগপত্রের ব্যাপারেও এ আইনজীবীদের পরামর্শ নেবেন তাঁরা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা