kalerkantho

ম্যাজিক বাউলিয়ানা মহাযজ্ঞ শুরু

এবারের আসরের নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়েছে গতকাল বিকেল থেকে। চলবে ২৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



ম্যাজিক বাউলিয়ানা মহাযজ্ঞ শুরু

ম্যাজিক বাউলিয়ানা ২০১৯ উপলক্ষে গতকাল রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী। ছবি : কালের কণ্ঠ

লোকসংগীত বাংলাদেশের সব শ্রেণির মানুষের কাছে সমান জনপ্রিয়, আদরণীয়। প্রবহমান সংস্কৃতির ধারায় সংগীতের অন্য ক্ষেত্রগুলোর মতো লোকসংগীত সহাবস্থান করছে তার স্বকীয় রূপবৈচিত্র্য নিয়ে। লোকগানের ইতিহাস-ঐতিহ্যের এই শক্তিকে বিশ্বমঞ্চে তুলে ধরার অন্যতম একটি প্ল্যাটফর্ম হচ্ছে ‘ম্যাজিক বাউলিয়ানা’। এবার নিয়ে তৃতীয়বারের মতো শুরু হচ্ছে ‘ম্যাজিক বাউলিয়ানা ২০১৯’ আসরের নিবন্ধন কার্যক্রম।

সান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ও স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেডের পৃষ্ঠপোষকতায় আয়োজনটির উদ্দেশ্য দেশের তরুণ প্রজন্মকে লোকগানের সঙ্গে পরিচয় করানো, বিশ্বমঞ্চে বাংলা লোকগানের চিরন্তন আবেদন তুলে ধরা। এরই ধারাবাহিকতায় এবারও অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এই মহাযজ্ঞ। এতে বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন সংগীতশিল্পী শফি মণ্ডল, নাশিদ কামাল ও চন্দনা মজুমদার। এবারের বিজয়ী প্রতিযোগীরা দেশ ও বিদেশের জনপ্রিয় লোকসংগীতশিল্পীদের সঙ্গে ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোক ফেস্ট’-এর মঞ্চে গাওয়ার সুযোগ পাবেন।

গতকাল বুধবার বিকেল ৩টায় এবারের আসরের নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। চলবে ২৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। বাংলাদেশের সাতটি অঞ্চল ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, রাজশাহী, রংপুর, কুষ্টিয়া ও ময়মনসিংহে অনুষ্ঠিত হবে ‘ম্যাজিক বাউলিয়ানা ২০১৯’-এর অডিশন রাউন্ড। অডিশন রাউন্ড থেকে বাছাই করা শিল্পীদের পরবর্তী পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য নির্বাচিত করা হবে। তাঁদের নিয়ে করা হবে গ্রুমিং সেশন। সেখানে শিল্পীদের সংগীত পরিবেশনা, সুরের ব্যবহার, যথাযথ স্কেল নির্বাচন, শুটিং-সংক্রান্ত বিষয়ে ধারণা দেওয়ার পাশাপাশি ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানো, মাইক্রোফোনের পজিশন, শব্দ প্রক্ষেপণ, পারফর্মিং আর্টসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় বিষয়ে ধারণা দেওয়া হবে।

বাছাই করা প্রতিযোগীদের নিয়ে শুরু হবে ‘ম্যাজিক বাউলিয়ানা ২০১৯’-এর মূল প্রতিযোগিতা। পর্যায়ক্রমে তাঁদের মধ্য থেকে সেরা তিন শিল্পীকে ‘ম্যাজিক বাউলিয়ানা ২০১৯’-এর বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করা হবে। বর্ণাঢ্য এই আয়োজন, তারকা শিল্পীদের অংশগ্রহণ আর প্রতিযোগীদের লড়াই প্রচার করা হবে মাছরাঙা টেলিভিশনের পর্দায়। বর্ণিল এ আয়োজনের মিডিয়া পার্টনার দৈনিক কালের কণ্ঠ।

গতকাল দুপুরে রাজধানীর গুলশানের একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ‘ম্যাজিক বাউলিয়ানা’ এবারের আসরের বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন আয়োজকরা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সান ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এবং মাছরাঙা টেলিভিশন ও স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী, স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেডের হেড অব অপারেশনস মালিক মো. সাঈদ, লোকসংগীতশিল্পী চন্দনা মজুমদার প্রমুখ। আরো ছিলেন লোকসংগীতশিল্পী ফকির শাহাবুদ্দিন ও ইবরার টিপু। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সংগীতশিল্পী হাসান আবিদুর রেজা।

অঞ্জন চৌধুরী বলেন, ‘লোকসংগীতের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি অটুট এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য যথাযথ আর্কাইভ তৈরির পাশাপাশি শিল্পীদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য, তাঁদের সঠিক মূল্যায়ন, গানের রাইটস ও রয়ালটি যথাযথভাবে নিশ্চিত করার জন্য যাত্রা শুরু হয়েছিল সান ফাউন্ডেশনের। যাত্রা শুরু করার পর থেকেই সান ফাউন্ডেশন বাংলা লোকসংগীতের প্রসার নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। লোকসংগীত বাংলাদেশের সব শ্রেণির মানুষের কাছে সমান জনপ্রিয়। প্রবহমান সংস্কৃতির ধারায় সংগীতের অন্য ক্ষেত্রগুলোর মতো লোকসংগীত সহাবস্থান করছে তার স্বকীয় রূপবৈচিত্র্য নিয়ে। লোকগানের ইতিহাস-ঐতিহ্যের এই শক্তিকে বিশ্বমঞ্চে তুলে ধরার অন্যতম একটি প্ল্যাটফর্ম হচ্ছে ম্যাজিক বাউলিয়ানা। প্রতিযোগিতাটি সবার জন্য উন্মুক্ত। বাংলাদেশের যেকোনো নাগরিক এতে অংশ নিতে পারবে।’

মালিক মো. সাঈদ বলেন, ‘ম্যাজিক বাউলিয়ানার মাধ্যমে শুধু মেধাবী শিল্পীই খুঁজে বের করা হবে না, শিল্পীদের রয়ালটি নিশ্চিত করার কাজও করা হচ্ছে। আগের দুবার ২০ হাজার ও ৩০ হাজার প্রতিযোগী নিবন্ধন করেছেন। আশা করছি, এবার আমরা ৫০ হাজার প্রতিযোগিকে সঙ্গে পাব।’

ম্যাজিক বাউলিয়ানার আয়োজক মাছরাঙ্গা টেলিভিশন। পৃষ্ঠপোষক স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেড, ক্রিয়েটিভ ও ইভেন্ট পার্টনার মিডিয়াকম লিমিটেড, রেডিও পার্টনার রেডিও দিন-রাত, ওয়ার্ডরোব পার্টনার বিশ্বরঙ, মিডিয়া পার্টনার কালের কণ্ঠ ও অনলাইন মিডিয়া পার্টনার বাংলানিউজ২৪.কম।

ম্যাজিক বাউলিয়ানা সম্পর্কে আরো জানতে ও রেজিস্ট্রেশন করতে ভিজিট করুন ম্যাজিক বাউলিয়ানার ওয়েবসাইট (www.magicbauliana.com.bd), অথবা ফোন করুন টোল ফ্রি নম্বরে ০৮০০০৮৮৮০০০।

মন্তব্য