kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বিরোধীদলীয় নেতা রওশন ঠিক হয়নি উপনেতা

চার দিনের সংসদ অধিবেশন শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অবশেষে জাতীয় পার্টি ঐক্যবদ্ধভাবে জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে রওশন এরশাদের নাম প্রস্তাব করে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর কাছে চিঠি দিয়েছে। গতকাল রবিবার জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যরা স্পিকারের কার্যালয়ে গিয়ে তাঁর হাতে চিঠিটি হস্তান্তর করেন। অধিবেশন চলাকালে শূন্য বিরোধীদলীয় নেতার আসনে বসেন রওশন এরশাদ। তাঁর পাশের আসনে বসেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের। তবে উপনেতা কে হচ্ছেন সেটা গতকাল পর্যন্ত ঠিক হয়নি বলে দলের মহাসচিব জানিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, গতকাল দুপুর ১টায় জাতীয় পার্টির সংসদীয় কমিটির যে বৈঠক হওয়ার কথা ছিল, সেটি হয়নি। অধিবেশন শুরুর আগে সংসদ লবিতে বৈঠক হয়েছে বলে জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে জানানো হয়। সন্ধ্যায় অধিবেশনের বিরতি চলাকালে সংসদ লবিতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, রওশন এরশাদকে বিরোধী দলের নেতা করার জন্য স্পিকারকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। সর্বসম্মতভাবেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান।

এর আগে বিরোধীদলীয় হুইপ জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা সংসদ লবি থেকে বের হয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের দলের সংসদ সদস্যরা সংসদীয় দলের সভায় বিরোধী দলের নেতা হিসেবে রওশন এরশাদকে মনোনয়ন করে স্পিকারের কাছে চিঠি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। দলের পক্ষ থেকেও একটি চিঠি দিয়ে এটা জানিয়ে দেওয়া হবে।’ বিরোধী দলের উপনেতা কে হবেন—এমন প্রশ্নের জবাবে জাতীয় পার্টির মহাসচিব বলেন, ‘বিরোধী দলের নেতা মনোনীত হওয়ার পর তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন কে হবেন বিরোধী দলের উপনেতা।’ আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমাদের মধ্যে কোনো বিরোধী নেই। গেইম ইজ ওভার।’

গতকাল বিকেলে শুরু হওয়া একাদশ জাতীয় সংসদের চতুর্থ অধিবেশন চলবে ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। প্রতিদিন বিকেল ৫টায় এ অধিবেশন বসবে। সংসদ অধিবেশন শুরুর আগে জাতীয় সংসদ ভবনে সংসদের কার্য-উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে অধিবেশনের সময়সীমা বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বৈঠকে কমিটির সদস্য সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, ওবায়দুল কাদের, হাসানুল হক ইনু, মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, আনিসুল হক, ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, নূর-ই-আলম চৌধুরী ও আবদুস সাত্তার ভুঞা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে জানানো হয়, চলতি অধিবেশনে সংসদে উত্থাপনের জন্য এ পর্যন্ত তিনটি সরকারি বিলের নোটিশ পাওয়া গেছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা