kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

হাসপাতালে লাশ ফেলে পালানোর চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাজীপুরের একটি পার্লারে কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যার পর হাসপাতালে লাশ ফেলে পালানোর চেষ্টাকালে পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে শহরের জোড়পুকুরপার এলাকার অ্যাডাম জেন্টস পার্লারে এ হত্যার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ১১ জনকে আসামি করে নিহতের ভাই হোসেন মণ্ডল বাদী হয়ে সদর থানায় মামলা করেছেন।

নিহত আসেদুল রনি (৩৫) নওগাঁ সদরের মো. জয়নুদ্দীনের ছেলে। তিনি গাজীপুর শহরের দক্ষিণ বরুদা এলাকায় অ্যাডাম জেন্টসে কাজ করতেন। তাঁর স্ত্রী ও দুই ছেলে রয়েছে। 

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন অ্যাডাম জেন্টস পার্লারের মালিকের স্ত্রী লাইজু আক্তার (২৫), ব্যবস্থাপক আল-আমিন (১৯), তিন কর্মচারী রিমন (২০), রিমন (১৮) ও আজিজুর (২৫)।

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে রনিকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায় কয়েকজন। রনি মারা গেছেন শুনে লাশ ফেলে পালানোর চেষ্টা করে সঙ্গে আসা লোকজন। এ সময় হাসপাতালে দায়িত্বরত আনসার সদস্যরা দুজনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

গাজীপুর সদর থানার এসআই সাইদুর রহমান জানান, অ্যাডাম জেন্টস পার্লারের মালিক নোমান, এনামুল ও রিংকু। রিংকুর পরিবার ও নিহত রনি পরিবার নিয়ে একই বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। রিংকুর ৯ বছর বয়সী ছোট বোনকে উত্ত্যক্তের অভিযোগে রনিকে নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে পার্লারে বিচার সালিস বসে। একপর্যায়ে রনিকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা