kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

চাকরি থেকে ছাঁটাই

মালিকের স্ত্রী ও কন্যাকে কোপ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাদক সেবন ও দোকানের হিসাবে গরমিল করার অভিযোগে চাকরি থেকে ছাঁটাই করায় ক্ষুব্ধ হয়ে মালিকের স্ত্রী ও মেয়েকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করেছেন এক কর্মী। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর কদমতলী থানার জুরাইনের মেডিক্যাল রোডে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত কর্মী শহিদুলকে (২৫) আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় লোকজন। মালিকের স্ত্রী মমতাজ বেগম (৪০) ও মেয়ে রুমা আক্তারকে (১৯) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁদের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

রুমা আক্তারের চাচাতো ভাই জাকির হোসেন জানান, তাঁর চাচা রব বেপারী পরিবার নিয়ে জুরাইনের মেডিক্যাল রোডের একটি বাসায় থাকেন। তাঁর একটি কনফেকশনারির দোকান রয়েছে। ওই দোকানে শহিদুল কাজ করতেন। স্থানীয় যুবকদের সঙ্গে মাদক সেবন করা এবং দোকানের হিসাবে গরমিল করার অভিযোগে তাঁকে বেশ কয়েক দিন আগে দোকান থেকে বের করে দেন রব বেপারী। 

এর শোধ নিতে গতকাল দুপুর ১২টার দিকে দু-তিনজনকে সঙ্গে নিয়ে রব বেপারীর বাসায় ঢোকেন শহিদুল। প্রথমেই তিনি রুমাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেন। রুমার চিৎকারে মা মমতাজ বেগম এগিয়ে এলে তাঁকেও জখম করে দুর্বৃত্তরা। আহতদের আর্তচিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে শহিদুলের সহযোগীরা পালিয়ে যায়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা