kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

মাগুরায় ৩৭৫ ছাত্রী পেল বাইসাইকেল

তারা গাইবে নারী জাগরণের গান

মাগুরা প্রতিনিধি   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



তারা গাইবে নারী জাগরণের গান

বাল্যবিয়ে প্রতিরোধসহ নারী জাগরণের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে কাজ করার জন্য বাইসাইকেল পেল মাগুরার ৬৯টি বিদ্যালয়ের ৩৭৫ জন ছাত্রী। নিয়মিত লেখাপড়ার পাশাপাশি এসব বাইসাইকেল নিয়ে তারা প্রত্যন্ত অঞ্চলে নারী উন্নয়নের নানা কার্যক্রমে অংশ নেবে। গতকাল বৃহস্পতিবার শহরের নোমানী ময়দানে মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর ছাত্রীদের মধ্যে এই বাইসাইকেল বিতরণ করেন।

আছাদুজ্জামান মিলনায়তনে এ উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে জেলা প্রশাসক আলী আকবরের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মাহাবুবুর রহমান, সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইব্রাহিম, মেয়র খুরশীদ হায়দার টুটুল, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু নাসির বাবলু, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান, জেলা পরিষদের প্যালেন চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান খোকন, মকবুল হাসান মাকুল, আশরাফুল ইসলাম বাবুল ফকির প্রমুখ।

কার্যক্রমের মূল সমন্বয়কারী মাগুরা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান জানান, লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্টের আওতায় ২৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকা ব্যয়ে মাগুরা সদর উপজেলা পরিষদ ১৩টি ইউনিয়নের ৬৯টি বিদ্যালয়ের ৩৭৫ জন ছাত্রীর মধ্যে এই বাইসাইকেল বিতরণ করে। উদ্দেশ্য হচ্ছে স্কুল বয়স থেকেই মেয়েদের সব জড়তা কাটিয়ে আত্মনির্ভর নারী হিসেবে গড়ে তোলা। যাতে তারা নিজ এলাকায় বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে ভূমিকা রাখাসহ নারী উন্নয়নের বিভিন্ন ক্ষেত্রে দলগতভাবে নানা প্রচারণা চালাতে পারে। এসংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ভিত্তিক স্লোগান তাদের বাইসাইকেলে লেখা আছে। এ ছাড়া প্রয়োজনীয় প্রচারপত্র তারা সব সময় বাইসাইকেলে রাখবে। স্কুলে যাওয়া-আসার পথে এবং বিভিন্ন এলাকায় তারা সেগুলো প্রচার করবে। তারা নারী উন্নয়ন ও জনসচেতনতার শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কাজ করবে।

মাগুরার কুছুন্দি দাখিল মাদরাসার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী মানরুবা খাতুন সাইকেল পেয়ে তার অনুভূতি জানাতে  গিয়ে বলে, ‘বাড়ি থেকে মাদরাসায় যেতে সমস্যা হতো। এখন বাইসাইকেল পাওয়ায় অনেক সহজে নিয়মিত মাদরাসায় যেতে পারব। এ ছাড়া  বাইসাইকেল নিয়ে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধসহ নারী উন্নয়নে কাজ করব।’

একই অভিব্যক্তি মাগুরা সদরের পাকা কাঞ্চনপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী রিয়া জোয়ার্দারসহ আরো অনেকের। রিয়া জোয়ার্দার বলে, ‘ছেলেরা বাইসাইকেল চালিয়ে স্কুলে যেতে পারলে আমরা কেন পারব না। ছেলেদের পাশাপাশি সাইকেল চালিয়ে এখন স্কুলে যেতে চাই। ইভ টিজিং, বাল্যবিয়েসহ সব অপরাধের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে চাই।’

মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর বলেন, ‘একটি মেয়ে বাইসাইকেল চালিয়ে যখন স্কুলে যাবে কিংবা বাল্যবিয়ে প্রতিরোধসহ নানা প্রচারণা চালাবে তার ভেতরের শক্তি উত্তরোত্তর বাড়বে। সে কখনোই পিছিয়ে পড়বে না।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা