kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

‘ল্যাম্প অব পিস’ পুরস্কার পেলেন ড. ইউনূস

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘ল্যাম্প অব পিস’ পুরস্কার পেলেন ড. ইউনূস

ভ্যাটিকানের মর্যাদাপূর্ণ ‘ল্যাম্প অব পিস’ পুরস্কার পেয়েছেন শান্তিতে নোবেল বিজয়ী প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউনূস। গত ৩ সেপ্টেম্বর ইতালির আসসিজিতে অবস্থিত ‘বাসিলিকা অব সেন্ট ফ্রান্সিসে’ তাঁর হাতে পুরস্কারটি তুলে দেওয়া হয়েছে। শান্তি ও সংহতি প্রতিষ্ঠায় উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য এ পুরস্কার প্রদান করা হয় বলে জানিয়েছে ইউনূস সেন্টার।

ইউনূস সেন্টার জানায়, আপার প্যাপাল বাসিলিকা অব আসসিজিতে একটি জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ড. ইউনূসের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়েছে। ভ্যাটিকানের পক্ষে হোলি কনভেন্ট এবং প্যাপাল বাসিলিকা অব আসসিজির মাস্টার ফাদার মওরো গামবেত্তি পুরস্কার তুলে দেন। পুরস্কার প্রদানের সময় ভ্যাটিকান নেতারা, ইতালির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেক্টর ও শিক্ষক, ব্যবসায়ী এবং রাজনৈতিক নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

পুরস্কার গ্রহণের সময় প্রফেসর ইউনূস বলেন, ‘সম্পদের প্রবল ও ক্রমাগত কেন্দ্রীকরণ, পরিবেশের বিপর্যয় এবং আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের উত্থান—এই তিন সংকটে রয়েছে মানবজাতি। এ সংকটগুলো মোকাবেলায় এখনই কার্যকর ব্যবস্থা নিতে না পারলে পৃথিবীতে মানবজাতির অস্তিত্ব হুমকির মুখে পড়বে।’

জানা গেছে, ১৯৮১ সালে পোল্যান্ডের ট্রেড ইউনিয়ন নেতা লেস ওয়ালেসাকে প্রথম ‘ল্যাম্প অব পিস’ পুরস্কার দেওয়া হয়। এরপর পোপ দ্বিতীয় জন পল, দালাই লামা, কলকাতার সেন্ট তেরেসা এবং রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট মিখাইল গর্বাচেভকে পুরস্কারটি দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল ও জর্দানের রাজা দ্বিতীয় আবদুল্লাহ পুরস্কারটি পেয়েছেন।

এর আগে ‘দ্য হোলি কনভেন্ট অব প্যাপাল বাসিলিকা অব আসসিজির মুখপাত্র ও পরিচালক ফাদার এনজো ফরতুনাতো পুরস্কারটির জন্য ইউনূসের নাম ঘোষণা করেন। গত ২৮ জুন থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের একটি অনুষ্ঠানে পোপ ফ্রান্সিসের প্রতিনিধি হিসেবে তিনি ঘোষণাটি দিয়েছিলেন বলে জানায় ইউনূস সেন্টার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা