kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

তাজিয়া মিছিলে রক্তাক্ত মাতম নিষিদ্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিয়া সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুষ্ঠান পবিত্র আশুরা উপলক্ষে তাজিয়া শোক মিছিলে রক্তাক্ত মাতম সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে ডিএমপি। ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া এ ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, তাজিয়া শোক মিছিলে ডিএমপির পক্ষ থেকে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

গতকাল বুধবার সকাল ১১টায় ডিএমপি হেডকোয়ার্টার্সে এক সমন্বয় সভায় এ ঘোষণা দেন তিনি। সভায় ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধি, সরকারের বিভিন্ন সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিসহ শিয়া সম্প্রদায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

আগামী শনিবার দুপুর ২টায় আঞ্জুমানে হায়দারীর আয়োজনে হোসেনি দালান ইমামবাড়া থেকে শোক মিছিলের মধ্যদিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে পবিত্র আশুরা পালন শুরু হবে। বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে আগামী মঙ্গলবার আশুরা পালন শেষ হবে।

ডিএমপি সূত্র জানায়, সমন্বয় সভায় আশুরার শোক মিছিল আয়োজক কর্তৃপক্ষকে ১৩টি নির্দেশনা দিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার। এগুলোর মধ্যে রয়েছে শোক মিছিলে নির্ধারিত রুট ও সময়সীমা মেনে চলা, মিছিলে কোনো পাইক যেন অংশগ্রহণ করতে না পারে তা নিশ্চিত করা, মিছিলে নিশানের উচ্চতা ১২ ফুটের বেশি না হওয়া, তাজিয়া শোক মিছিল ও অন্যান্য অনুষ্ঠানে পর্যাপ্তসংখ্যক সিসি ক্যামেরা স্থাপন ও মনিটরিংয়ের ব্যবস্থা করা, পর্যাপ্তসংখ্যক আইডি কার্ডসহ স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা, যাচাই-বাছাইয়ের জন্য ছবিসহ তালিকা সংশ্লিষ্ট উপপুলিশ কমিশনারের অফিসে পাঠানো ইত্যাদি। এ ছাড়া তাজিয়া শোক মিছিলে সব ধরনের ধারালো অস্ত্র, ধাতব পদার্থ, দাহ্য পদার্থ, ব্যাগ, পোঁটলা, লাঠি, ছোরা, চাকু, তরবারি/তলোয়ার, বর্শা, বল্লম ও আতশবাজির ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পোশাকের সঙ্গেও এগুলো ব্যবহার করা যাবে না। শোক মিছিল চলাকালীন রাস্তার মাঝে বিভিন্ন অলিগলি থেকে আগত লোকদের মিছিলে প্রবেশ করতে দেওয়া যাবে না। মিছিলে অংশগ্রহণ করতে হলে মিছিল শুরুর স্থানে যেতে হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা