kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

দুই পুলিশ কর্মকর্তা প্রত্যাহার

জাহালম হতে হতে রক্ষা মোটর মেকানিকের!

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর মোহাম্মদপুরে কামাল হোসেন নামে এক মোটরসাইকেল মেকানিককে হয়রানির অভিযোগে পুলিশের দুই সহকারী উপপরিদর্শককে (এএসআই) প্রত্যাহার করা হয়েছে। গতকাল সোমবার মোহাম্মদপুর থানার এএসআই জাকারিয়া ও আলমগীরকে প্রত্যাহার করে তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনারের (ডিসি) কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়।

দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁরা মাদক মামলার এক আসামি ও তার বাবার নামের সঙ্গে কামাল ও তার বাবার নামের মিল থাকায় নিরীহ কামালকে ‘জাহালমের মতোই ফাঁসিয়ে’ দিচ্ছিলেন। মামলা থেকে রেহাই পেতে কামালের কাছে পুলিশকে ‘খুশি’ করারও প্রস্তাব দেওয়া হয়। তবে ভুল আসামি ধরার সত্যতা পাওয়ায় ওসির নির্দেশে মোটর মেকানিক কামালকে ছেড়ে দেওয়া হয়। পরে পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) ওয়াহেদুল ইসলামকে বিষয়টি তদন্তের দায়িত্ব দেয় ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।

ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের ডিসি আনিসুর রহমান বলেন, ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ওই দুই পুলিশ সদস্যকে ক্লোজ (প্রত্যাহার) করে ডিসি কার্যালয়ে নিযুক্ত করা হয়েছে। ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। 

কামাল হোসেন জানান, ৩০ আগস্ট (শুক্রবার) বিকেলে শ্যামলী রিং রোডের বাদশাহ ফয়সাল ইনস্টিটিউটের কাছে তল্লাশি চালায় পুলিশ। তখন এএসআই জাকারিয়া মাদক মামলার আসামি উল্লেখ করে কামালকে আটক করেন। ঘটনাস্থলের কাছেই কামালের মোটরসাইকেল মেরামতের গ্যারেজ। ২০০৯ সালের একটি মাদক মামলায় চার্জশিটভুক্ত আসামির নাম মো. কামাল। বাবার নাম মনির। মোটর মেকানিক কামালেরও বাবার নাম মনির হোসেন। কামালকে থানায় নেওয়ার পর পুলিশ যাচাই করে দেখে, আসামি কামালের জন্ম ১৯৮২ সালে। আটক কামালের জন্ম ১৯৮৭ সালের ২৬ নভেম্বর। আসামি কামালের মায়ের নাম, জন্মসাল, এলাকা ও পেশার সঙ্গে আটক কামালের মায়ের নাম, জন্মসাল, এলাকা ও পেশার মিল নেই। শুক্রবার রাতেই কামালকে ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন ওসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা