kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

জাবিতে প্রশাসন ও আন্দোলনকারীদের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি

প্রশাসনের মানববন্ধনের কারণ জানেন না অংশগ্রহণকারী কর্মচারীরা!

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উপাচার্য ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে মিথ্যাচারের প্রতিবাদে গতকাল সোমবার মানববন্ধন করেছে উপাচার্যপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ’। তাদের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও মানববন্ধনে অংশ নিয়েছেন। তবে তাঁদের অনেকেই মানববন্ধনের কারণ জানেন না বলে জানিয়েছেন। এদিকে একই দিনে প্রশাসনের বিরুদ্ধে চলমান আন্দোলনের অংশ হিসেবে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বিএনপি, বাম, আওয়ামীপন্থী (একাংশ) শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

গতকাল সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারসংলগ্ন সড়কে উপাচার্যপন্থী শিক্ষকরা মানববন্ধন করেন। মানববন্ধনে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহম্মদ হানিফ আলী বলেন, ‘জাহাঙ্গীরনগর কি রিজার্ভ ফরেস্ট যে এখানে কোনো গাছ কাটা হবে না? গাছ কাটা হবে, আবার গাছ লাগানোও হবে। যেখানে যা প্রয়োজন তা-ই হবে। আন্দোলন করেন বা কর্মসূচি দেন কোনো সমস্যা নেই। কাজ চলবে।’ 

এদিকে উপাচার্যপন্থী শিক্ষকদের সঙ্গে একাত্মতা জানিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। তবে তাঁদের মধ্যে বেশ কয়েকজন জানিয়েছেন, তাঁরা জানেন না কেন এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়েছে। ওপর থেকে কড়া নির্দেশ থাকায় এতে অংশ নিয়েছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন জানান, ইচ্ছা না থাকা সত্ত্বেও জোর করে তাঁদের মানববন্ধনে নিয়ে আসা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা