kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

পিয়ারজান প্রাথমিক বিদ্যালয়

অবশেষে শিক্ষালয়টিতে ভবন নির্মাণ হচ্ছে

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অবশেষে ময়মনসিংহের নান্দাইলে কুতুবপুর পিয়ারজান প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চারতলা ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। ৪৪ বছরের পুরনো এ বিদ্যালয়ের জমি ফেরত চেয়ে সম্প্রতি হামলা-মামলার ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে গত ২২ আগস্ট দৈনিক কালের কণ্ঠর শেষ পৃষ্ঠায় একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এরপর গতকাল সোমবার বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে ভবন নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আবেদীন খান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নান্দাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাসান মাহমুদ, মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. আবু বক্কর সিদ্দিক প্রমুখ। নান্দাইল এলজিইডির প্রকৌশলী মো. আবুল খায়ের বলেন, এ বিদ্যালয়ের ভবনটি হবে চারতলা বিশিষ্ট। প্রথমে দুই তলা নির্মিত হবে। এতে আনুমানিক এক কোটি ১২ লাখ টাকা ব্যয় হবে।

ওই বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করা হয় ১৯৭৪ সালে। সেই সময় স্কুল প্রতিষ্ঠার জন্য বাড়ির সামনে ৫১ শতক জমি দান করেন স্থানীয় আছর আলীর স্ত্রী পিয়ারজান বিবি। এ ঘটনার ৪৪ বছর পর সেই জমির মালিকানা দাবি করে মামলা করেছেন তাঁর দুই ছেলে ও তিন নাতি। তাঁদের ভাষ্য, পিয়ারজান বিবি ওই জায়গা দান করেননি। এ কারণে গত ১৮ আগস্ট প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, বিদ্যালয়ের পাঁচ শিক্ষকসহ ৯ জনের নামে আদালতে তাঁরা মামলা করেছেন। এতে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে ভবন নির্মাণে নিষেধাজ্ঞা  প্রার্থনা করা হয়েছে। আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর মামলাটির শুনানি হওয়ার কথা আছে। এদিকে জমির মালিকানা দাবি করা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার ও পানির মোটরে হামলা এবং টয়লেট নির্মাণে বাধা দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে পাঁচজনকে আসামি করে মামলা করেছেন প্রধান শিক্ষক রোকেয়া খাতুন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা