kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ নভেম্বর ২০১৯। ২৭ কার্তিক ১৪২৬। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

মালদ্বীপে স্পিকারস সামিট

জলবায়ুবিষয়ক সেশনে মডারেটর স্পিকার শিরীন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মালদ্বীপে চলমান চতুর্থ সাউথ এশিয়ান স্পিকারস সামিটের জলবায়ুবিষয়ক সেশনে মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। এ সময় তিনি প্যারিস জলবায়ু চুক্তির সফল বাস্তবায়নের জন্য আইনি বিচ্যুতিগুলো দূর করার সঠিক কর্মপরিকল্পনা গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন।

সংসদ সচিবালয় থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন গতকাল সোমবার মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে ‘ক্যাটালাইজিং দ্য গ্লোবাল এজেন্ডা অন ক্লাইমেট চেঞ্জ-ওভারকামিং চ্যালেঞ্জেস অ্যান্ড ইউটিলাইজিং অপরচুনিটিজ টু স্ট্রেনদ্যান দ্য রিজিওনাল এজেন্ডা ফর ডেলিভারিং অন দ্য প্যারিস অ্যাগ্রিমেন্ট’ শীর্ষক সেশনে মডারেট করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। ওই সেশনে প্যানেল আলোচক ছিলেন মালদ্বীপ পার্লামেন্টের এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড ক্লাইমেট চেঞ্জ কমিটির সভাপতি আহমেদ সালিম, নেপালের অ্যাটমোসফেয়ার ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ইন্টিগ্রেটেড মাউন্টেন ডেভেলপমেন্টের আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক অরনিকো কুমার পাণ্ডে এবং ইউএনডিপি সদর দপ্তরের ইনক্লুসিভ পলিটিক্যাল প্রসেস টিম লিডার চার্লস চ্যাওভেল।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ওই সেশনে জলবায়ু চুক্তির ভবিষ্যৎ বাস্তবায়নের গতি নিয়ে আলোচনা হয়। এ সময় প্যারিস চুক্তির সফল বাস্তবায়নের জন্য আইনি বিচ্যুতিগুলো দূর করার কর্মপরিকল্পনা ও সঠিক বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া নিয়ে কথা বলেন আলোচকরা। এ ছাড়া সেশনে আঞ্চলিক দায়বদ্ধতার জন্য সংসদগুলোর ভূমিকা শক্তিশালীকরণ, জলবায়ু পরিবর্তন, বায়ুদূষণ ও স্বাস্থ্যের মধ্যে পারস্পরিক সমন্বয় সাধন, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা এবং বিদ্যমান দুর্যোগ ঝুঁকি, ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠী ও ইকোসিস্টেম বিষয়ে আলোচনা হয়।

এদিকে স্পিকার এর আগে ভারতের লোকসভার স্পিকার এম বিড়লার সঙ্গে বৈঠক করেন। এ সময় তিনি রোহিঙ্গা ইস্যু, ই-পার্লামেন্ট, মৈত্রী গ্রুপ গঠনসহ দ্বিপক্ষীয় স্বার্থসংশ্লিষ্ট অন্যান্য বিষয়ে আলোচনা করেন।

গত রবিবার থেকে শুরু হওয়া সম্মেলনে মালদ্বীপের স্পিকার মোহাম্মদ নাশিদ, ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন (আইপিইউ) সেক্রেটারি জেনারেল মার্টিন চুনগং, দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশের স্পিকার এ সম্মেলনে অংশ নেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা