kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ঠাকুরগাঁও হাসপাতাল

নতুন ভবন চালুর কার্যক্রম ফের পেছাল

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের ২৫০ শয্যা ভবনের নির্মাণকাজে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য রমেশ সেন। এ কারণে ফের পেছাল নয়া হাসপাতাল ভবন চালুর কার্যক্রম।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী পরিচালকের পক্ষ থেকে নতুন এ ভবনের কার্যক্রম গতকাল সোমবার চালু হওয়ার কথা ছিল। জানা গেছে, অবকাঠামো ও বহির্বিভাগে নানা সমস্যার কারণে নয়া ভবনের কার্যক্রম শুরু করতে নিষেধ করেছেন সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন। গতকাল হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় তিনি এ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন। এর ফলে দুই মাস পেছাতে পারে ভবন চালুর প্রক্রিয়া।

১০০ শয্যার আধুনিক সদর হাসপাতালটি ২৫০ শয্যায় উন্নীত করার পর নয়া ভবনের নির্মাণ ব্যয় ধরা হয় প্রায় ৩৩ কোটি টাকা। ভবনটি উদ্বোধনের পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আনুষঙ্গিক কাজ শেষ করার তাগাদা দিয়ে কয়েক দফায় চিঠি দিলেও এখনো কাজ শেষ করতে পারেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও গণপূর্ত বিভাগ। ১০ তলা করার কথা থাকলেও বর্তমানে সাততলা পর্যন্ত ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। এ ছাড়া দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলায় পুরুষ ও মহিলাদের জন্য পৃথক টয়লেট নেই, কনসালট্যান্ট রুম, নাসিং রুম, স্টোর, নার্সিং চেঞ্জ রুমের সুবিধা নেই। এমনকি জরুরি বিভাগে কলাপসিবল গেটও দেওয়া হয়নি।

সিভিল সার্জন ডা. এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম জানান, নির্ধারিত সময়ের প্রায় দেড় বছর পেরিয়ে গেলেও এখনো ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের নতুন ভবনের কাজ শেষ করতে পারেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। ত্রুটিপূর্ণ এ নতুন ভবনের কার্যক্রম এভাবে চালু করলে নানা সমালোচনার সন্মুখীন হতে হবে। তাই চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতির কাছে ভবন ব্যবহারে অসুবিধাগুলো তুলে ধরা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা