kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বাল্যবিয়েমুক্ত কুলাউড়ায় কনের বয়স ১৭ বছর!

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তিন বছর আগে মৌলভীবাজারের প্রথম বাল্যবিয়ে মুক্ত উপজেলা ঘোষণা করা হয় কুলাউড়াকে। মাস তিনেক পর পুরো জেলাকেই বাল্যবিয়ে মুক্ত ঘোষণা করা হয়। এর পরও থামেনি বাল্যবিয়ের প্রবণতা। সর্বশেষ গতকাল রবিবার কুলাউড়ার একটি কমিউনিটি সেন্টারে বাল্যবিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। বিষয়টি জানতে পেরেও প্রশাসনের তরফ থেকে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল দুপুরে উপজেলার টিলাগাঁও ইউনিয়নের তাহির আলী কমিউনিটি সেন্টারে একটি বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠান চলাকালে বাল্যবিয়ের গুঞ্জন দেখা দিলে তড়িঘড়ি আয়োজন শেষ করা হয়। এ বিয়ের কনে হলেন পৃথিমপাশা ইউনিয়নের সিকন্দর আলীর মেয়ে সেলিনা বেগম। বর হাজিপুর ইউনিয়নের হাজিপুর গ্রামের ছমদ মিয়ার ছেলে মখছন মিয়া। গত ২৯ আগস্ট পৃথিমপাশা ইউনিয়নের কাজী রফিকুল ইসলাম এ বিয়ের কাবিননামা সম্পন্ন করেন।

স্থানীয় করইগ্রাম প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, কনে ২০১৩ সালে পিএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। তাঁর জন্মতারিখ ২০ জুন ২০০২ খ্রিস্টাব্দ। সে হিসাবে কনের বয়স ১৭ বছর দুই মাস ১২ দিন। অবশ্য জন্মসনদে কনের জন্মতারিখ ১ জানুয়ারি ২০০০ খ্রিস্টাব্দ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা