kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ নভেম্বর ২০১৯। ২৭ কার্তিক ১৪২৬। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ধর্ষণ থেকে বাঁচতে নন্দাইকে কোপালেন গৃহবধূ

পাটগ্রাম (লালমনিরহাট) প্রতিনিধি   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লালমনিরহাটের পাটগ্রামে ধর্ষণ থেকে বাঁচতে নন্দাইকে বাইস দিয়ে কুপিয়েছেন এক গৃহবধূ। গতকাল সোমবার পাটগ্রাম পৌরসভার দক্ষিণ কোটতলী এলাকায় ধর্ষণের চেষ্টার সময় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ গৃহবধূকে আটক এবং গুরুতর আহত ননদের স্বামী ইউসুফ আলীকে (৩৪) উদ্ধার করে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ ভর্তি করেছে। আহত ইউসুফ পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী কামারপাড়া গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে।

পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক মুশফিকুর সালেহীন বলেন, ইউসুফ আলীর শরীরে মারধর এবং মুখের ডান দিকে ও মাথায় কোপানোর ক্ষত দেখা হয়েছে।

থানা পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, পাটগ্রাম শহরের কোটতলী এলাকার ওই গৃহবধূকে দীর্ঘদিন উত্ত্যক্ত ও কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল ইউসুফ। সে গতকাল সকাল সাড়ে ১১টায় বাড়িতে একা পেয়ে ওই গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়।

এ সময় ধর্ষণ থেকে রক্ষা পেতে গৃহবধূর ঘরে থাকা রড দিয়ে ইউসুফকে পেটান এবং বাইস দিয়ে কুপিয়ে মাথা ও মুখে আহত করেন। চিৎকার শুনে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গৃহবধূ ও ইউসুফ আলীকে উদ্ধার করে পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে গুরুতর আহত ইউসুফ আলীকে কর্তব্যরত চিকিৎসক রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।

পাটগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত) সুমন কুমার মহন্ত বলেন, গৃহবধূ জানিয়েছেন ইউসুফ দীর্ঘদিন থেকে তাঁকে উত্ত্যক্ত

করত। কোপানোর ঘটনায় বিকেল পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ দেয়নি। গৃহবধূ পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা