kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

‘বিএনপির জন্মের মধ্য দিয়ে দেশে গণতন্ত্র সুপ্রতিষ্ঠিত হয়েছিল’

জিয়ার কবরে শ্রদ্ধা নিবেদনে গিয়ে নেতা লাঞ্ছিত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



‘বিএনপির জন্মের মধ্য দিয়ে দেশে গণতন্ত্র সুপ্রতিষ্ঠিত হয়েছিল’

বিএনপির ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল জিয়ার সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান দলের নেতাকর্মীরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

সারা দেশে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে গতকাল রবিবার দলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করেছে বিএনপি। ১৯৭৮ সালের ১ সেপ্টেম্বর জিয়াউর রহমান বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেন। দিনটি উপলক্ষে বিএনপি এদিন আলোচনাসভা করেছে। এ ছাড়া ভোরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ সারা দেশের সব কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের পক্ষ থেকে ছাপানো পোস্টার লাগানো হয়। নেতাকর্মীরা সকালে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান এবং ফাতেহা পাঠ করেন। পুষ্পস্তবক অর্পণের সময় বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের হাতে মহানগরের এক নেতা লাঞ্ছিত হন।

দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর পৃথক বিবৃতি দিয়েছেন। আজ সোমবার রাজধানীতে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে শোভাযাত্রা করবে দলটি।

দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ছাড়া টানা দ্বিতীয়বারের মতো প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করল বিএনপি। গতকাল সকালে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, দলের নেতা ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী কয়েক হাজার নেতাকর্মীকে নিয়ে শেরেবাংলানগরে জিয়ার করবে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন এবং প্রয়াত নেতার আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত করেন।

পরে সাংবাদিকদের ফখরুল বলেন, এই দলের জন্মের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে গণতন্ত্রকে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছেন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান। তিনি গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো দিয়েছেন, ফলে অন্য রাজনৈতিক দলগুলো আত্মপ্রকাশ করে। দুর্ভাগ্য আজকে, দীর্ঘ ৪০ বছর পর যে শক্তি আগে গণতন্ত্রকে হরণ করেছিল, ধ্বংস করেছিল, হত্যা করেছিল, একদলীয় বাকশাল প্রতিষ্ঠা করেছিল; তারাই আজকে সম্পূর্ণ অবৈধভাবে ক্ষমতায় এসে বিরোধী রাজনীতিকে ধ্বংস এবং ভিন্নমত যাঁরা অবলম্বন করছেন তাঁদের নিশ্চিহ্ন করার হীন চক্রান্ত শুরু করেছে। তিনি আরো বলেন, এই চক্রান্তের অংশ হিসেবে খালেদা জিয়াকে দীর্ঘ ১৮ মাস কারাগারে আটক করে রাখা হয়েছে। বিএনপিকে আগামী দিনগুলোতে আরো ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। ঐক্যবদ্ধ সংগ্রামের মধ্য দিয়ে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সব দল-মতকে পুনরুদ্ধার করতে হবে, দেশনেত্রীকে মুক্ত করতে হবে।

ফখরুল বলেন, আজকের সারা দেশে কর্মসূচি পালনে বাধা দেওয়া হয়েছে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি করতে দেওয়া হয়নি। এতে প্রমাণিত হয়, সরকার গণতন্ত্রের ন্যূনতম যে স্পেস সেটিও দিতে চায় না।

এক প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘দেশনেত্রীর মুক্তি এবং গণতন্ত্রকে মুক্ত করার জন্য একটি নির্বাচন চাই। একটা নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে হবে। এই দুটি দাবিতে আমরা আন্দোলন করছি এবং আন্দোলন আরো বেগবান হবে।’

নেতা লাঞ্ছিত : কবরে ফুল দিতে গিয়ে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের রোষানলে পড়েন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির নেতারা। তাঁদের মধ্যে সংগঠনের সিনিয়র সহসভাপতি (বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি) মুন্সি বজলুল বাসিত আঞ্জুকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা হয়। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ হাসান ও যুগ্ম সম্পাদক এ জি এম শামসুল ইসলাম পরিস্থিতি বুঝতে পেরে দৌড়ে পালিয়ে যান।

ঘটনাস্থলে থাকা স্থানীয় ছাত্রদল নেতা ইসমাইল হোসেন বলেন, বিক্ষুব্ধদের প্রধান টার্গেট ছিলেন আহসান উল্লাহ হাসান, এ জি এম শামসুল ইসলাম ও দপ্তর সম্পাদক এ বি এম রাজ্জাক। তবে তাঁরা পালিয়ে যাওয়ায় আঞ্জুকে কিল, ঘুষি, লাথি মারা হয়। তাঁর পাঞ্জাবিও ছিঁড়ে ফেলা হয়। পরে তিনিও দৌড়ে পালিয়ে যান।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি : আজ সোমবার বিকেল ৩টায় নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে শোভাযাত্রা করবে বিএনপি। এতে দলটির সিনিয়র নেতারা উপস্থিত থাকবেন বলে দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা