kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

চার দাবিতে দপ্তরিদের আলটিমেটাম

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাকরি রাজস্ব খাতে স্থানান্তরসহ চার দফা দাবিতে এক মাসের আলটিমেটাম দিয়েছেন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরি-কাম-প্রহরীরা। গতকাল রবিবার রাজধানীর মিরপুরে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সামনে অবস্থান নেন তাঁরা। তবে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা তাঁদের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দিলে এক মাসের আলটিমেটাম দিয়ে ঢাকা ছাড়েন সারা দেশ থেকে আগত দপ্তরিরা।

দাবিগুলো হলো দপ্তরি-কাম-প্রহরীদের চাকরি রাজস্বভুক্ত করা, আইন অনুযায়ী কর্মঘণ্টা নির্ধারণ করা, বেতন-ভাতার সমস্যা সমাধান এবং নৈমিত্তিক ছুটির ব্যবস্থা করা।

গত সপ্তাহে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দপ্তরি-কাম-প্রহরী পদে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে বিদ্যমান নীতিমালার আলোকে জনবল নিয়োগের কার্যক্রম স্থগিত করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে এই পদের চলমান নিয়োগ কার্যক্রমও বাতিল করা হয়। এর পরই মূলত আন্দোলনে নামেন দপ্তরিরা।

জানা যায়, ‘বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কর্মচারী কল্যাণ সমিতি’র ব্যানারে গতকাল সকাল থেকেই দপ্তরিরা ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে বিভিন্ন জেলা থেকে এসে জড়ো হতে থাকেন।

সকাল ১০টার দিকে কর্মচারী কল্যাণ সমিতির নেতাদের সঙ্গে আলোচনায় বসেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী আলোচনা শেষে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আবদুল মান্নান বলেন, ‘নিয়মতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সরকারের বিধিসম্মত আইন প্রণয়ন করে শিগগিরই দপ্তরি-কাম-প্রহরীদের সমস্যা সমাধান করা হবে।’

এরপর সমিতির সভাপতি সাধন কান্ত বাড়ই অবস্থান কর্মসূচি স্থগিত ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, ‘আগামী এক মাসের মধ্যে জটিলতা নিরসন না হলে আবারও কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা