kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

আইনমন্ত্রী বললেন

সব সরকারি চুক্তিতে এডিআর যুক্ত করা হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সব সরকারি চুক্তিতে বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির (এডিআর) জন্য উপযুক্ত ধারা যুক্ত করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি হোটেলে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল আরবিট্রেশন সেন্টার (বিয়াক) আয়োজিত ‘টেকসই আর্থিক খাতের জন্য আর্থিক বিবাদসমূহ সমাধানকল্পে কার্যকর বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তি প্রক্রিয়া’ শীর্ষক একটি সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক এ কথা বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, মামলা-মোকদ্দমার আগে বিরোধ নিষ্পত্তিতে সালিস ও মধ্যস্থতার প্রয়োগ নিশ্চিত করা গেলে আদালতের ওপর চাপ কমবে। এর ফলে মামলার জট কমবে। বিশ্বব্যাপী ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলো এখন মামলা-মোকদ্দমার দীর্ঘসূত্রতায় না জড়িয়ে বিরোধ নিষ্পত্তি করার জন্য দ্রুত এবং সোজাসাপ্টা পদ্ধতিকে বেছে নিচ্ছে। অর্থাৎ তারা বিরোধ নিষ্পত্তি পদ্ধতি পরিবর্তন করা শুরু করেছে এবং বাণিজ্যিক বিরোধের দ্রুত ও কার্যকর সমাধানের সুবিধার্থে এডিআর পদ্ধতিগুলোকে সামনে নিয়ে এসেছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশেও বিরোধ নিষ্পত্তিতে সীমিত আকারে এডিআর পদ্ধতি বেশ কিছুদিন ধরে প্রয়োগ করা হচ্ছে। এটিকে আইনি কাঠামোতে আনতে সরকার আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক সালিস, বিদেশি সালিসি রোয়েদাদ স্বীকৃতি ও বাস্তবায়ন এবং অন্যান্য সালিস সম্পর্কিত বিধান প্রণয়নকল্পে বাংলাদেশে ২০০১ সালে সালিসি আইন প্রণয়ন করে, যা বাংলাদেশকে আধুনিক সালিস বা আরবিট্রেশনের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে এসেছে।

বিয়াকের চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক, থাইল্যান্ড আরবিট্রেশন সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পাসিত আসওয়াওয়াত্তাপরন, বিশ্বব্যাংকের কর্মকর্তা পারমিতা দাসগুপ্তা প্রমুখ বক্তব্য দেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা